প্রে’মিকার স’ঙ্গে যৌ’ন মি’লনে আ’টকে গেল পুরু’ষা’ঙ্গ এরপর

0
162

বর্তমান সময়ে পর’কীয়া সম্প’র্ক বিকট আকার ধারণ করেছে। যা প্রায়ই প্রতিদিনই কোনো না কোনো মিডিয়ার খবরে পাওয়া যায়। স্ত্রী রয়েছে তবুও লুকিয়ে অন্য না’রীর প্রেমে মজেছেন স্বা’মী। আবার স্বা’মী রয়েছে তবুও লুকিয়ে অন্য পুরু’ষের প্রেমে মজেছেন স্ত্রী।সম্প্রতি এমনই একটি ঘ’টনা ঘটেছে।

তা হলো স্ত্রী রয়েছে তবুও লুকিয়ে অন্য এক না’রীর প্রেমে মজেছিলেন স্বা’মী।দীর্ঘদিন যাবত তার এই কাণ্ড চলছিল। কিন্তু, তার যে এমন পরিণতি হবে, তিনি হয়তো তা কল্পনাই করেন নি। সম্প্রতি সেই পর’কীয়া প্রে’মিকার স’ঙ্গে শারী’রিক মি’লনের সময় ঘটে গেল এই বিপত্তি।

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, কেনিয়ার একটি হোটেলে সম্প্রতি পর’কীয়া প্রে’মিকার স’ঙ্গে যৌ’ন মি’লনের সময় ওই ব্যক্তির পুরু’ষা’ঙ্গ আ’টকে যায়।

জানা গেছে, ওই ব্যক্তি একটি হোটেল রুম ভাড়া করে তার প্রে’মিকাকে নিয়ে আসেন। শারী’রিক মি’লন চলাকালীন তারা চি’ৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন এবং সাহায্যের জন্য অ্যালা’র্ম বাজান। পরে হোটেলের কর্মীরা সেখানে প্রবেশ করে দেখেন,

তাদের যৌ’না’ঙ্গ এমনভাবে আ’টকে গেছে যে তারা আলাদা হতে পারছিলেন না।পরে হোটেলর কর্মীরা চেষ্টা করেও তাদেরকে একে অপরের থেকে আলাদা করতে না পেরে ওঝা ডেকে আনেন। এক পর্যায় ঝাড়ফুঁক করে পর’কীয়া জুটিকে আলাদা করার চেষ্টা করেন ওই ওঝা। কিন্তু, তিনিও ব্যর্থ হন।

শেষ পর্যন্ত ওই যু’গলদের চিকিৎসকের কাছে নিতে হয়।চিকিৎসকরা জানানএই অবস্থার নাম ‘পে’নিস ক্যা’পটিভাস’।চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এমন ঘ’টনা বিরল, তবে নজিরবিহীন নয়।

এর আগেও এক স’ঙ্গীতশি’ল্পী আর এক শিল্পীর স্ত্রী’র স’ঙ্গে মি’লিত হতে গিয়ে এই অবস্থায় পড়েছিলেন। উগান্ডায় ঘটা সেই ঘ’টনার ভিডি’ও চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।আরো পড়ুন বিবা’হিত না’রী জীবনে অসু’খী কিনা লক্ষণদেখলেই বুজা যায় অনেকগুলো স্বপ্নের জাল বুনে একজন না’রী স্বা’মীর সংসার শুরু করেন। বলা যায় একটি নতুন জীবনের সূচনা।

বিবা’হিত জীবন খুব সু’খে শান্তিতে কাটবে এমনটাই কমনা থাকে সবার তবে সব আশা সবার পুর্ন হয়না। তাই বিয়ের পরও দুঃখী থেকে যায় কিছু না’রী।আপনি যদি একজন বিবা’হিত না’রী হয়ে থাকনে এবং আপনার বিবা’হিত জীবন যদি সু’খকর না হয়ে থাকে তবে আজকের এই লেখা ধরে নিন আপনাকে উদ্দেশ্য করেই। আসলে একটা সময়ে গিয়ে আমরা জীবনে ঠিক বেঠিক বুঝে উঠতে পারিনা।

আমরা কি আসলেই ভালো আছি কিনা তাও বুঝিনা। আজ আমরা আলোচনা এমন কিছু লক্ষণ নিয়ে যা স্পষ্ট করে যে একজন বিবা’হিত না’রী সু’খে নেই। প্রথমেই বলা যাক ঘুমের কথা।উইমেনস হেলথ একরোস দ্যা ন্যাশনের ডাক্তার ট্রক্সেল একটি বিশেষ গবে’ষণার পর এ কথা বলেন যে,

সু’খী বিবা’হিত না’রীরা অসু’খী না’রীদের তুলনায় শতকরা ১০ ভাগ গভীর এবং সু’খকরভাবে নিদ্রা যাপন করে থাকেন।হতে পারে আপনার স্বা’মী শহরের বাইরে আছেন কিংবা আপনার আপনার স’ন্তানের অ’সুস্থ।

যে কোন কারনেই হোক না কেন একজন বিবা’হিত না’রী সেই মুহূর্তে যথেষ্ট অসু’খী যখন তার ঘুমের জায়গা টেনশন দ’খল করে নেয়।একজন অসু’খী বিবা’হিত না’রীর দ্বিতীয় লক্ষণ হচ্ছে ক্লান্তি।

ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালেফোর্নিয়ার একটি গবে’ষণায় এ কথা বলা হয় একজন সু’খী বিবা’হিত না’রী সংসারের যে কোন ঝামেলা সামলে উঠেও ক্লান্ত হন না, বরং বেশ ভালোবেসেই কাজগুলো করেন। যেখানে একজন অসু’খী না’রী সাংসারিক জীবন নিয়ে যথেষ্ট ক্লান্তিভাব পোষণ করেন এবং নিজেকে পরিবর্তনও করতে নারাজ থাকেন।একজন বিবা’হিত না’রীর আবেগ, চাওয়া পাওয়া থাকে তার স্বা’মীকে ঘিরে।

সেই স্বা’মী যখন অবহেলা করেন কিংবা স্ত্রী’কে বুঝতে চেষ্টা করেন না তখন সে না’রী হয়ে উঠেন একজন অসু’খী না’রী। বর্তমান সমাজে দেখা যায় ঠিক এ কারনেই অনেক না’রী বিবাহ বহির্ভূত সম্প’র্কে জড়িয়ে
পড়েন এবং নিজের ইচ্ছে বা চা’হিদা পূরণের চেষ্টা করে থাকেন। যেকোন সম্প’র্কেই দূরত্ব জিনিসটা ক্ষ’তির কারন হয়ে দাঁড়ায়। না, এই দূরত্ব কোন বাহ্যিক দূরত্ব নয়।মনের দূরত্বের কথা বলছিলাম।

অনেক বিবা’হিত দম্পতির ক্ষেত্রেই দেখা যায় চার দেয়ালের মাঝে দিনের পর দিন থাকার পরও তারা একে অপরের চেয়ে বেশ দূরে। নিশ্চয়ই এটি একজন অসু’খী বিবা’হিত না’রীর খুব বড় একটি লক্ষণ। দূরত্বের কারন স্বা’মী হতে পারে আবার স্ত্রীও হতে পারে।

হয়ত স্বা’মী তার স্ত্রীর প্রতি সম্মান হা’রিয়ে ফে’লে কিংবা স্ত্রী তার স্বা’মীর প্রতি বিশ্বাস হা’রিয়ে ফে’লে।বিয়ে একটি বড় ধরণের সামাজিক সম্প’র্ক। আর বিয়ে পরবর্তী সময়ে সু’খী থাকতে চাওয়াটা যে কোন না’রীরই কাম্য।

তাই, উপরের লক্ষণ গুলোর একটিও যদি আপনার মনের জানালায় উঁকি দেয় আজই আপনার স্বা’মীর সাথে খোলাখুলি আলোচনা করে সব ঠিক করে নিন আর সু’খী বিবা’হিত জীবনযাপন করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here