ধ’র্ষকের শা’স্তি মৃ’ত্যুদ’ণ্ড করতে প্রথমে মাঠে নামে ছাত্রলীগ: জয়

0
60

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেছেন, ধ’র্ষণের ঘ’টনায় জ’ড়িতদের সর্বোচ্চ শা’স্তির বিধান মৃ’ত্যুদ’ণ্ড করতে সবার আগে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মাঠে নেমেছে।

ধ’র্ষকের সর্বোচ্চ শা’স্তি মৃ’ত্যুদ’ণ্ডের বিধান মন্ত্রীসভায় খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়ায় মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) দুপুর বারোটায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মধুর ক্যান্টিন থেকে আ’নন্দ র‌্যালি বের করে সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। র‌্যালি পরবর্তী সমাবেশে এ কথা জানান ছাত্রলীগ সভাপতি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সহ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ।

প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ধ’র্ষকদের সর্বোচ্চ শা’স্তি মৃ’ত্যুদ’ণ্ডের বিধান এনে গতকাল একটি আইন পাস হয়েছে মন্ত্রিসভায়। আমরা কৃতজ্ঞ , আমরা ধ’ন্যবাদ জানাই আমাদের যে অনুরোধ ছিল প্রা’ণপ্রিয় নেত্রীর কাছে তিনি তা রেখেছেন। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ পরিবার দেশরত্ন শেখ হাসিনার কাছে কৃতজ্ঞ।

তিনি আরো বলেন, ধ’র্ষকদের সর্বোচ্চ শা’স্তি মৃ’ত্যুদ’ণ্ডের বিধান করার জন্য সবার আগে মাঠে নামে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। কিন্তু কিছু অসৎ নামসর্বস্ব ব্যক্তি, নামসর্বস্ব সংগঠন, ধ’র্ষকদের যারা সবসময় সাপোর্ট দেয়, তারা মি’থ্যা বলে যে সিমপ্যাথি নেওয়ার চেষ্টা করেছে সেটা কিন্তু সবাই জেনেছে যে এই নাটক বাজদের এজেন্ডা পাকিস্তানের এজেন্ডা।সুতরাং এই পাকিস্তানিদের কোন ভাবে বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করার সুযোগ দিবোনা। জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সব সময় পরিশ্রম করা যাবে, তার হাত ধরে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে।

লেখক ভট্টাচার্য বলেন, জনগণের আবেদনে সাড়া দিয়ে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ইতিমধ্যেই গতকালের মন্ত্রীসভায় ২০০০ সালের যে না’রী নি’র্যাতন আইন ছিল সে আইনের খসড়া সংশোধ’ন করে ধ’র্ষণের সর্বোচ্চ শা’স্তি যাবজ্জীবন কা’রাদ’ণ্ড থেকে বাড়িয়ে মৃ’ত্যুদ’ণ্ড হিসাবে মন্ত্রিসভায় অনুমোদন প্রদান করা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে আজকের এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। বিকাল ৩ টায় সারা বাংলাদেশের আমাদের সকল ইউনিট এ কর্মসূচি পালন করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here