প্রবাসীর স্ত্রী’কে নিয়ে উধাও মসজিদের ইমাম

0
74

পাবনার সাঁথিয়া উপজে’লার গোপালপুর মসজিদের ইমাম জাকারিয়া বিয়ে করায় তার নে’শা। একে একে বিয়ে করেছেন চারজনকে। আর এক স্ত্রীর মা’ম’লা’য় তাকে ১৪ বছরের কা’রা’দ’ণ্ড দেয়া হয়। বর্তমানে জা’মিনে ছিলেন তিনি। এরই মধ্যে পঞ্চমবারের মতো বিয়ের কথা বলে প্রবাসীর স্ত্রী’কে নিয়ে ঘর ছেড়েছেন।

নি’রু’দ্দে’শ হওয়ার ২০ দিন অতিবাহিত হলেও পু’লিশ এখনও তাদের উ’দ্ধার করতে পারেনি। অভি’যো’গ সূত্রে জানা যায়, সিরাজগঞ্জের শাহাজাদপুর উপজে’লার খামার সানিলা গ্রামের বাসিন্দা ও সাঁথিয়ার কাশিনাথপুর আ. লতিফ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক খালেক মাওলানার ছেলে জাকারিয়া (৩৫)। তিনি কাশীনাথপুর ইউনিয়নের গোপালপুর আত্রাইশুকা মসজিদের ইমামের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

তিনি বিভিন্ন সময়ে মসজিদের পার্শ্ববর্তী মৃ’ত ইয়াদ আলীর মে’য়ে ও সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী ও ১ স’ন্তানের জননীকে প্রেমের প্র’স্তা’ব দিয়ে আসছিলেন। এরই এক পর্যায়ে গত ১৯ সেপ্টেম্বর সকালে ইমাম জাকারিয়া বিয়ের প্র’লো’ভ’নে স্বর্ণা’লং’কার ও নগদ প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকাসহ প্রবাসীর স্ত্রী নাছিমা (৩০) কে নিয়ে নি’রু’দ্দেশ হন। নাছিমার পরিবারের সদস্যরা তাদের অনেক খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে ২০ সেপ্টেম্বর তার মামা আ. মান্নান বা’দী হয়ে সাঁথিয়া থানায় একটি অভি’যো’গ দা’য়ের করেন।

জাকারিয়ার ৪ নম্বর স্ত্রী শারমিন আক্তার সাথী জানান, তার স্বা’মী তাকেসহ ৪টি বিয়ে করেছিল। তার বি’রু’দ্ধে রাজশাহীর স্ত্রী চম্পা না’রী ও শি’শু নি’র্যা’তন আইনে মা’ম’লা করেন। সে মা’মলায় তার ১৪ বছরের সা’জা হয়। ঢাকা হাইকোর্ট থেকে তিনি জা’মিনে আছেন।

এর আগে সাঁথিয়ার গৌড়িগ্রামের মুক্তি নামে এক স্ত্রী মা’ম’লা করলে টাকা দিয়ে তা মী’মাং’সা করা হয়। সেখানে জাকারিয়ার একটি ছেলে স’ন্তান রয়েছে। শারমিন আক্তার সাথী জানান, তাকে বিয়ে করার সময় তার বাবার নিকট থেকে জাকারিয়া ৩ লাখ টাকা যৌ’তু’ক নেন।

জাকারিয়া ওইদিন সুজানগর এক মসজিদের ইমামের চাকরির কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে প্রবাসীর স্ত্রী’কে নিয়ে উ’ধা’ও হন। সাঁথিয়া থানার এসআই রাশেদুল ইসলাম জানান, ইমামের বি’রু’দ্ধে অ’ভি’যো’গ পেয়েছি। তার বাড়ি শাহজাদপুর উপজে’লায়। তাকে আ’ট’কের চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here