বিয়ের পর এক বছর সহ’বাস, তবুও স্ত্রী’র ম’র্যাদা দেয়নি

0
105

স্ত্রী’’র ম’র্যাদা পেতে ত্রিপুরার উত্তর জে’লার অন্তর্গত ধ’র্মনগর এলাকায় স্বা’মী কল্পজ্যোতি নাথের বাড়ির গেটের সামনে প্ল্যাকার্ড হাতে অ’নশন শুরু করেছেন এক তরুণী।স্বপ্না নাথ নামের ওই তরুণী বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) সকাল থেকে প্ল্যাকার্ড হাতে ধ’র্মনগর থা’নার শি’ববাড়ি এলাকার বাসিন্দা কল্পজ্যোতি নাথের বাড়ির গেটের সামনে অ’নশন শুরু করে

স্বপ্না নাথের দাবি, এক বছর আগে ভা’রতের দক্ষিণের রাজ্য কর্নাট’কের রাজধানী বেঙ্গালুরু শহরে কল্পজ্যোতি নাথের স’ঙ্গে তার বিয়ে হয়েছে। সেখানে তারা দীর্ঘ এক বছর একস’ঙ্গে স্বা’মী-স্ত্রী’’ হিসেবে সংসার করেছেন।তারা দু’জনেই বেঙ্গালুরু শহরে প্রাইভেট সংস্থায় কাজ করেছেন। কল্পজ্যোতি নাথ তাকে ধ’র্মনগর থেকে বেঙ্গালুরুতে নিয়ে গিয়ে ছিল। স্বপ্নার বাড়ি ধ’র্মনগর থা’নার রাধাপুর এলাকায়।

বেঙ্গালুরু থেকে ফিরে আসার পর স্বপ্না তার বাবার বাড়ি চলে এবং কল্পজ্যোতি তার বাড়িতে যায়। তাদের মধ্যে কথা হয়েছিল বাড়ি ফেরার পর কল্পজ্যোতি স্ত্রী’’ হিসেবে স্বপ্নাকে তার বাড়িতে নিয়ে যাবেন। কিন্তু এখন কল্পজ্যোতি তাদের বিয়ের বি’ষয়টি অস্বীকার করছেন।স্বপ্না তার দাবির স্বপক্ষে প্রমাণ হিসেবে তাদের দু’জনের একস’ঙ্গে তোলা একাধিক ছবিও প্ল্যাকার্ড লাগিয়ে রেখেছে।

সেখানে তিনি লিখেছেন, বিয়ে করে এক বছর সহ’বাস করার পরও স্ত্রী’’ হিসেবে ম’র্যাদা দেয়নি। তাই দাবি আদায়ের জন্য বা’ধ্য হয়ে শ্বশুর বাড়ির সামনে অ’নশনে বসতে হয়েছে বলেও জানান স্বপ্না নাথ।তিনি আরও জানান, যতক্ষণ না পর্যন্ত তাকে কল্পজ্যোতি তাকে স্ত্রী’’ হিসেবে মেনে না নেবেন ততক্ষণ পর্যন্ত অ’নশন চালিয়ে যাবেন।

এ বি’ষয়ে অ’ভিযু’ক্ত কল্পজ্যোতি নাথ বলেন, এ ঘ’টনা সম্পূর্ণ মি’থ্যা, ভিত্তিহীন। তার স’ঙ্গে স্বপ্নার কোনো স’ম্পর্ক নেই।মি’থ্যা অ’ভিযোগ দিয়ে তাকে ফাঁ’সানোর চেষ্টা চলছে। অবশ্য এ বি’ষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি কল্পজ্যোতি নাথের পরিবারের সদস্যরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here