লোকটি ফোনে যে নোং’রামিটা করছে, সেটা খুবই অশালীন

0
82

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রা’প্ত অ’ভিনেত্রী খালেদা আক্তার কল্পনা ৩৭ বছরের ক্যারিয়ারে পাঁচ শতাধিক চলচ্চিত্রে অ’ভিনয় করেছেন। বর্ণিল ক্যারিয়ারে শতাধিক নাট’কেও অ’ভিনয় করেছেন তিনি।

কিন্তু সম্প্রতিকালে তাকে এক ব্যক্তি মোবাইলে ফোন দিয়ে নানান রকম অরুচিকর-অশালীন কথায় বির’ক্ত করে যাচ্ছেন। এ নিয়ে দেশের একটি জাতীয় পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রবীণ এই অ’ভিনেত্রী বলেন,

রাত নাই দিন নাই ফোন দেয়। কী’ সব অশালীন কথাবার্তা বলে, যা মুখেই বলা যায় না। সেসব শব্দ শুনলেই মনে ঘৃ’ণা জ’ন্মে। লোকটি ফোনে যে নোং’রামিটা করছে, সেটা খুবই অশালীন।’

‘করো’নার এই সময়ে এত ভ’য় দেখাই, করো’না পরিস্থিতির কথা বলি, তা–ও লাভ হয় না। পু’লিশে ধরিয়ে দেওয়ার কথা বললেও সে পাত্তা দেয় না। অসহ্য হয়ে গেছি। থা’নায় গিয়ে ডায়েরি করব, করো’নার কারণে পারছি না। বাইরে গেলেই করো’নার ভ’য়। সবাই নি’ষেধ করে থা’নায় গিয়ে মা’মলা করতে। এখন অ’পরিচিত নম্বর থেকে ফোন এলেই ভ’য় লাগে।’

কল্পনা বলেন, ‘আজ থেকে প্রায় এক বছর আগে প্রথম আমাকে ফোন দেয়। ফোন দিয়ে জিজ্ঞাসা করে, “আপনি কি খালেদা আক্তার কল্পনা।” তখন আমি বলি হ্যাঁ, আপনি কে? তারপর এমন একটা বাজে শব্দ উচ্চারণ করে, যা শুনে আমি স’ঙ্গে স’ঙ্গে ফোন কান থেকে নামিয়ে রাখি। তখনই আমি অস্বস্তিবোধ করি।

ভু’ল করে বলেছে কি না, এটা জানার জন্য আবার ফোনটি কানে নিয়ে শুনতে থাকি কী’ বলছে। এমন সব অ’শ্লীল নোং’রা কথা বলছে, যা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব নয়। আমি স’ঙ্গে স’ঙ্গে ব্লক লিস্টে ফে’লে দিই। এরপর দেখি সে আরও অন্য নম্বর দিয়ে ফোন দেয়।

অনেকবার বলেছি আমি অ’সুস্থ ব’য়স্ক মানুষ। আমাকে দয়া করে আর ফোন দেবেন না। কোনো লাভ হয় নাই। এরপরও ফোন দিয়ে নিয়মিত বির’ক্ত করে।’

ঘ’টনাগুলো কিছুটা শেয়ার করেছেন অ’ভিনেতা ডি এ তায়েবের কাছে। এ বি’ষয়ে ডি এ তায়েব বলেন, ‘এটা খুবই ঘৃণিত কাজ। আপা (খালেদা আক্তার কল্পনা) যদি নিরাপত্তা চেয়ে অ’ভিযোগ বা মা’মলা করেন, তাহলে আম’রা তাকে খুঁজে বের করে অ্যারেস্ট করার চেষ্টা করব। আইনের আওতায় এনে তার বিচার করা হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here