স্ত্রীর সঙ্গে স’হবা’স করতে করতে স্বা’মীর চি’ৎকার ! ছিঁড়েই গেল ! কিন্তু কেন ?

0
433

একটি ভু’ল অ’স্ত্রোপচার । যৌ’ন জীবন চিরতরে বিপন্ন হয়ে গেল ব্রিটিশ ম’হিলা থেরেসা বার্টর‌্যামের । আরও ভালো যৌ’নজীবন উপভোগের জন্য ভ্যাজাইনায় একটি কসমেটিক সার্জারি করান ৫০ বছরের থেরেসা ।

অ’স্ত্রোপচারের পর যেটা হয়, তা হল, মি’লনের সময় যো’নির দুদিকের দেওয়াল পেনিসকে রীতিমতো কামড়ে ধরে । এমনই সেই কামড়, যার জেরে স্বা’মীর যৌ’নাঙ্গ র’ক্তাক্ত হয়ে যায় । সেপটিক হয়ে যায় । তারপর থেকে ৭ বছর আর যৌ’ন জীবন উপভোগ করতে পারেননি ।

থেরেসার কথায়, ‘যো’নিতে যেন কয়েকটি শক্ত দাঁত গজিয়েছে ।’ ঠিক কী হয়েছিল ? থেরেসা জানাচ্ছেন, বিয়ের পর দু’বছর চুটিয়ে সে’ক্স লাইফ উপভোগ করেছেন । বছর ৭ আগে তাঁর একটি স’ন্তান হয় ।

তারপর স্বা’মীকে আরও বেশি সুখ দেওয়ার জন্য ভ্যাজাইনায় একটি প্লাস্টিক সার্জারি করান তিনি । লিকিং বন্ধ করে যো’নিকে আরও টাইট করতে একটি প্লাস্টিকের জালের মতো জিনিস বসায় ।

সার্জারির নাম transvaginal tape (TVT)। যা পরবর্তী ক্ষেত্রে ‘ভেনাস ফ্লাইট্র্যাপ’ হয়ে যায় । অর্থাত্‍‌ যো’নিতে কিছু ঢুকলেই কামড়ে ধরে । যাকে বলে মরণ কামড় ।

থেরেসার কথায়, ‘ওই সার্জারির পর যখন আমরা মিলিত হতে গেলাম, আমি ভেবেছিলাম, স্বা’মীকে সুখে ভরিয়ে দেব । কিন্তু তারপর যা ঘটল, তা হাড়হিম করে দেয় । আমার স্বা’মীর পেনিস কামড়ে ধরল ভ্যাজাইনা । যেন র’ক্তখেকো মাছের কামড় । প্রায় ছিঁ’ড়েই যাচ্ছিল পেনিস ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here