কলার খোসার এই ৭ টি ব্যবহার জা’নলে আর কখনই ফে’লে দেবেন না!

0
102

কলার খোসা আম’রা অধিকাংশ সময়ই ফে’লে দিই ডাস্টবিনে৷ কিন্তু অনেকেই জানি না কলার খোসার কত গুন৷ শুনতে অ’বাক লাগলেও একথা সত্যি৷

কলা অধিক পটাশিয়ামযুক্ত বলে র’ক্তচা’প ও হৃদরো’গের রো’গীদের জন্য খুবই উপকারী একটি ফল। এর পাশাপাশি কলার খোসাতেও রয়েছে অনেক উপকার৷ বিভিন্ন কাজে ব্যবহার ক’রতে পারেন আপনি এই খোসাকে৷ জে’নে নিন পাকা এবং কাঁচা কলার খোসার অভিনব কিছু ব্যবহার।

১. ব্রণ দূ’র ক’রতে: ব্রণকে দ্রু’ত দূ’র ক’রতে সাহায্য করে কলার খোসা। কলার খোসার ভি’তরের অংশটি দিয়ে ব্রণের উপর ঘষতে থাকুন। কিছুক্ষণ পর দেখবেন ব্রণ মিলিয়ে গিয়েছে!

২.মশা বা পোকামাকড়ের কা’মড়: মশা বা পোকামাকড়ের কা’মড়ের ফলে ত্বকে এক ধ’রনে জ্বা’লা বা চুলকানি হয়। এই জ্বা’লা বা চুলকানি থেকে তাত্ক্ষ ণিক র’ক্ষা পেতে চাইলে কলার খোসার ভি’তরের দিক ওই স্থানে ঘষুন। দেখবেন জ্বলুনি বা চুলকানি একদমই কমে গিয়েছে।

৩. দাঁত সাদা ক’রতে: যতই ব্রাস করছেন না কেন দাঁত ঝকঝকে হচ্ছে না? এই স’মস্যার সমাধান ক’রতে ব্যবহার ক’রতে পারেন কলার খোসা। কলার খোসার ভে’তরের দিকটা দাঁতে ঘষতে থাকুন দু’মিনিট ধ’রে। এরপর পাঁচ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর আপনার নিয়মিত টুথপেস্ট দিয়ে দাঁত মেজে ফেলুন। মাত্র সাত দিনেই দাঁত হয়ে উঠবে ঝকঝকে সাদা।

৪. খাবার হিসেবে: কাঁচা কলা খাওয়া হয় সবজি হিসেবে। এর ফেলা দেয়া খোসাও খাওয়া যায় খাবার হিসেবে। কাঁচা কলার খোসার উপরের আঁশ ফে’লে দিয়ে কুচি করে নিন। এরপর এটা ভাঁপিয়ে নিন। এর সাথে শুকনো মরিচ ভাজা, পেঁয়াজ, রসুন ও সরিষার তেল দিয়ে বেটে নিন। হয়ে গেল চমত্কারর ভর্তা। চাইলে এর সাথে ছোট চিংড়ি মাছও ভেজে যোগ ক’রতে পারেন।

৫. জুতো চকচকে করে তুলতে: হাতের কাছে শু পলিশ নেই অথচ চকচকে করে তুলতে হবে জুতো? শু পলিশের পরিবর্তে ব্যবহার ক’রতে পারেন কলার খোসা। প্রথমে জুতায় ময়লা লে’গে থাকলে তা প’রিষ্কার করে নিন। এবার পাকা কলার খোসার ভে’তরের অংশ দিয়ে জুতোর উপরে ঘষুন অন্ত’ত পাঁচ মিনিট। নিজেই দেখবেন যে চকচকে হয়ে উঠতে শুরু করেছে জুতো। এবার একটি পা’তলা প’রিষ্কার কাপড় দিয়ে জুতা জোড়া ভালো করে মুছে নিন।

৬. আঁচিল দূ’র ক’রতে: অনেকেই শ’রীরে অতিরি’ক্ত আঁচিল নিয়ে অনেক বিব্রত থাকেন। কলার খোসা এই আঁচিল দূ’র ক’রতেও সাহায্য ক’রতে পারে। কলার খোসার ভি’তরের অংশ আঁচিলের ও’পর রাখু’ন। নিয়মিত ব্যবহারে আঁচিল শুকিয়ে প’ড়ে যাবে। তবে সাত দিনের মধ্যে এ পদ্ধতিতে আঁচিল প’ড়ে না গেলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত।

৭. সিডি বা ডিভিডির স্ক্র্যাচ দূ’র ক’রতে: সিডি বা ডিভিডিতে কিছুদিনের মধ্যেই স্ক্র্যাচ প’ড়ে ন’ষ্ট হয়ে যায়। এতে সিডি চলতে চায় না, ডিভিডির ভিডিও আ’টকে আ’টকে যায়। এ স’মস্যা সমাধান ক’রতে পারে কলার খোসা। কলার খোসার ভি’তরের অংশটি দিয়ে সিডি বা ডিভিডিটি ভালো করে ঘষে নিন। দেখবেন স্ক্র্যাচ একেবারেই চলে গিয়েছে। এবং সিডি বা ডিভিডিও চলছে আগের মতোই৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here