ছাত্রের সাথে পরকিয়া স্ত্রীর, স্বা’মী গেলেন আ’দালতে

0
206

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্ত্রীর বি’রুদ্ধে প’রকীয়ার অ’ভিযোগ এনে মা’মলা দা’য়ের করেছেন এক স্বা’মী। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম সদর আ’দালতে এ মা’মলা করেন স্বা’মী সাদ্দাম হোসেন দীপু।

আ’দালতের বিচারক ফারজানা আহমেদ মা’মলাটি গ্রহণ করে মা’মলার দুই আ’সামি স্ত্রী শ্রাবণী বুশরা এশা ও তার প্রে’মিক মুনতাছির ইভানের বি’রুদ্ধে সমন জারি করেছেন।

বা’দী সাদ্দাম হোসেন দীপু ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরশহরের উত্তর মৌড়াইল মহল্লার জহিরুল ইসলামের ছেলে।

এশা ঢাকার উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজের সাবেক ছাত্রী ও বর্তমানে ধানমন্ডি এলাকার আনোয়ার খান মডার্ন আধুনিক মেডিকেল কলেজের প্রভাষক। আর মুনতাছির উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজের ছাত্র।

মা’মলা সূত্রে জানা গেছে, বিএসসি ইঞ্জিনিয়ার দীপুর সাথে গত ২০১৪ সালের ২৮ আগস্ট রেজিস্ট্রি কাবিন করে উত্তর মৌড়াইল মহল্লার বাসিন্দা জেড এম ইমরান আলীর মে’য়ে শ্রাবণী বুশরা এশার সাথে বিয়ে হয়। দীপু অফিসের কাজে ঢাকার বাইরে গেলে তার স্ত্রী এশার সাথে যোগাযোগ করার জন্য আ’সামি মুনতাছির তার বাড়িতে আসা-যাওয়া করত।

গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর দুপুরে দীপু তার অফিসের কাজে কর্মস্থলে ছিলেন। এদিন এশা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তার বাবার বাড়িতে মুনতাছিরের সাথে ব্যভিচারে লি’প্ত হয় বলে মা’মলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

মা’মলার বা’দী পক্ষের আইনজীবি আরিফুল হক মাসুদ বলেন, সাধারণত এ ধরণের মা’মলা আ’দালত আমলে নিয়ে ত’দন্তের নির্দেশ দিয়ে থাকেন। কিন্তু প’রকীয়ার ঘ’টনায় চট্টগ্রামে চিকিৎসক আত্মহ’ত্যার কারণে আ’দালত এ ঘ’টনাটিকে গুরুত্ব দিয়ে আ’সামিদের বি’রুদ্ধে সমন জারি করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here