ধেয়ে আসছে ঘূ’র্ণিঝড় ‘গবে’ ভ’য়াবহ সতর্কবার্তা আবহাওয়া অফিস

0
311

আবারও বড় ঘূ’র্ণিঝড়ের আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। অক্টোবর মাসেই আ’ঘাত হানতে পারে ঘূ’র্ণিঝড় ‘গবে’। ভারতীয়দের দেয়া নাম ‘গবে’র বাংলা অর্থ হচ্ছে ‘গতি’। চলতি মাসেও নিম্নচা’প দেখা যেতে পারে একাধিক এমন আভাসও দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

গত বেশ কিছুদিন ধরেই দেশের আকাশে বৃষ্টির ঘনঘটা। মৌসুমি বায়ুর সাথে বঙ্গোপসাগরের নিম্নচা’পের ফলে বৃষ্টি হচ্ছে প্রতিদিনই। আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে জানানো হয়েছে অক্টবরের প্রথমার্ধেও বৃষ্টিপাত স্বাভাবিক থাকবে।

পাশাপাশি সেপ্টেম্বরেও নিম্নচা’পের আভাস দেয়া হয়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহম’দ বলেন, ‘’আগামী অক্টোবরের প্রথমার্ধের মধ্যে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু তথা বর্ষা বাংলাদেশ থেকে বিদায় নেবে। তাই বৃষ্টিপাতও স্বাভাবিক হবে। তবে এ মাসে বঙ্গোপসাগরে ১ থেকে ২টি নিম্নচা’পের সৃষ্টি হতে পারে, যার মধ্যে অন্তত একটি ঘূ’র্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে।‘’

গত মে মাসের ২০ তারিখে বাংলাদেশ এবং পশ্চিমবঙ্গে আ’ঘাত হেনেছিল আম্পান। সুপার সাইক্লোনের শ’ক্তি প্রদর্শন কর ব্যাপক ক্ষ’তিসাধ’নও করেছিল আম্পান। ভারতের তুলনায় অবশ্য কিছুটা কম ক্ষ’তি হয়েছিল বাংলাদেশে। অন্যদিকে ৩ জুন আরব সাগরে সৃষ্ট ঘূ’র্ণিঝড় নিসর্গ আ’ঘাত হানে ভারতের মহারাস্ট্রে। সেখানেও ব্যাপক ক্ষ’তিসাধ’ন হয়েছিল।অক্টোবরে যদি আবারও ঘূ’র্ণিঝড় হয় তাহলে এবার ক্ষ’তির পরিমাণ কম থাকবে নাকি বেশি থাকবে সেটা বলে দিবে সময়ই।

প্রস’ঙ্গত, আগস্টের শুরু থেকে বৃষ্টি কিছুটা কম থাকলেও ভ্যাপসা গরম ছিল বেশ। মাসের শেষের দিকে এসে নিয়মিত বৃষ্টির দেখাও মিলেছে। সেপ্টেম্বর মাসের শুরুর দিন থেকেই বৃষ্টির আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। বর্তমানে মৌসুমী বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তরাংশ হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। আর

মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মো’টামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি থেকে দু’র্বল অবস্থায় রয়েছে। ফলে দেশের বেশ কিছু নদীবন্দরকে ইতোমধ্যে সতর্কবার্তাও দেয়া হয়েছে আবহাওয়া অফিস থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here