সর্বোচ্চ আয় করা বলিউডের ১০ ছবি

0
161

উপমহাদেশের সিনেমা জগত কাঁপাচ্ছে বলিউড। প্রতিনিয়ত নির্মাণ হচ্ছে ভিন্ন স্বাদের সিনেমা। তবে প্রতিযোগীতার বাজারে খরচের সাথে তাল মিলিয়ে ব্যবসা সফলের তালিকায় আসেনি অনেক সিনেমা। বক্স অফিস ফ্লপ করে বিস্মৃ’ত হয়েছে
সেসব ছবির নাম।

আজ জানবো বক্স অফিস হিট করে ব্যবসা সফলের তালিকার শীর্ষে থাকা ১০ বলিউডি ছবি সম্প’র্কে।

১, ‘বজরঙ্গি ভাইজান’

বিজ্ঞাপন
কবির খানের পরিচালনায় ২০১৫ সালে মুত্তি পাওয়া এ সিনেমাটি বক্স অফিসে রেকর্ড ভে’ঙে নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। ছবিটির মানবিক আবেদন সারা ভারতে সবার মন জয় করতে স’ক্ষম হয়।

একইসাথে পাকিস্তানেও ব্যাপক জনপ্রিয় হয়। বর্তমানে ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ আলোচিত ছবির তালিকায় অবস্থান করছে ‘বজরঙ্গি ভাইজান’। শুধু তাই নয় সালমান খানের অভিনয় জীবনের সবচেয়ে ব্যবসাসফল চলচ্চিত্র হিসেবে মর্যাদা পেয়েছে। ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ সিনেমাটি আয় করেছে ভারতীয় রুপি অনুযায়ী ৯০০.৯ কোটি টাকা, নির্মাণে ব্যয় হয়েছিলো ৯০ কোটি রুপি।

২, ‘সিক্রেট সুপারস্টার’
একটি মু’সলিম বালিকার স’ঙ্গীত শিল্পী হতে চাওয়ার কাহিনী নিয়ে বানানো ‘সিক্রেট সুপারস্টার’ মুক্তি পায় ২০১৭ সালে। অদ্বৈত চন্দনের রচনা ও পরিচালনায় সিনেমাটি প্রযোজনা করেছেন আমির খান ও কিরন রাও। ১৫০ মিনিটের এই সিনেমাটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছিলো ১৫ কোটি রুপি। লাভ করে ৯০০ কোটি রুপি।

৩, ‘পিকে’
এই সিনেমাটিতে পিকে নামের এক মানব-আকৃতির এলিয়েনের গল্প বলা হয়েছে। এই এলিয়েন এক তরুণী টিভি সাংবাদিকের স’ঙ্গে বন্ধুত্ব করে এবং ধর্মান্ধতা ও কুসংস্কার নিয়ে প্রশ্ন তোলে। এটি মুক্তি পায় ২০১৪ সালে। ১৫২ মিনিটের এই সিনেমার পরিচালনা করেন রাজকুমার হিরানী এবং প্রযোজনা করেন হিরানী, বিধু বিনোদ চোপড়া ও সিদ্বার্থ রায় কাপুর। হিন্দি ভাষার এই সিনেমাটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছিলো ৮৫ কোটি রুপি। এতে মোট আয় হয়েছে ৭৯২ কোটি রুপি।

৪, ‘বাহুবলী: দ্য বিগিনিং’
তেলুগু ভাষার ভারতীয় মহাকাব্যিক চলচ্চিত্রের ১ম অংশ ‘বাহুবলী: দ্য বিগিনিং’। ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতের সর্বোচ্চ বাজেটের চলচ্চিত্র এটি। নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ২৫০ কোটি রুপি। চলচ্চিত্রটির দৃশ্যায়ণ করা হয়েছে অ্যারি অ্যালেক্সা এক্সটি ক্যামেরা ব্যবহার করে। ২০১৬ সালে মুক্তি পাওয়া এই সিনেমাটি পরিচালনা করেন এস. এস. রাজামৌলি। ব্যাপক সাড়া ফেলা এই ‘বাহুবলী: দ্য বিগিনিং’ সিনেমাটিতে লাভ হয় ৬৫০ কোটি রুপি।

৫, ‘পদ্মাবত’
সঞ্জয় লীলা বনশালির পরিচালনায় ভারতীয় মহাকাব্যিক সময়ের কাহিনীতে নির্মিত চলচ্চিত্রটির ‘পদ্মাবতী’ নাম থাকলেও তা পরিবর্তন করে ‘পদ্মাবত’ করা হয়। ২০১৮ সালে মুক্তি পাওয়া এই সিনেমাটিকে এখনো পর্যন্ত নির্মিত সবচেয়ে ব্যয়বহুল ভারতীয় চলচ্চিত্রের মধ্যে একটি ধরা হয়, এটা নির্মাণে ব্যয় হয় ২১৫ কোটি রুপি। আয় করে ৫৮৫ কোটি রুপি।

৬, ‘সুলতান’
সিনেমাটির গল্প হরিয়ানা থেকে আসা একজন কাল্পনিক পালোয়ান কুস্তিগীর এবং প্রাক্তন বিশ্ব কুস্তি চ্যাম্পিয়ন সুলতান আলী খানকে কেন্দ্র করে। যার সফল ক্যারিয়ার তার ব্যক্তিগত জীবনে বিপর্যয় সৃষ্টি করে। সালমান খান ও অনুষ্কা শর্মার অভিনয়ে ব্যাপক সাড়া ফেলা এই সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন আলী আব্বাস জাফর এবং প্রযোজনা করেছেন আদিত্য চোপড়া। এটি নির্মাণে ব্যায় হয়েছে ১৪৫ কোটি রুপি আর ব্যবসা করেছে ৫৮৪.৪ কোটি রুপি।

৭, ‘থ্রি ইডিয়টস’
ভারতে সব ওপেনিং বক্স অফিস রেকর্ড ভঙ্গ করা এ সিনেমাটি মুক্তি পায় ২০০৯ সালে। রাজকুমার হিরানীর পরিচালনা ও বিধু বিনোদ চোপড়ার প্রযোজনায় নির্মিত এ সিনেমা ছয়টি ফিল্ম ফেয়ার, দশটি স্টার স্ক্রিন এবং ষোলটি আইফা অ্যাওয়ার্ড জিতে নেয়। এতে অভিনয় করেছেন আমির খান, কারিনা কাপুর, আর মাধবন, শারমান যোশি। হিন্দি এবং ইংরেজী ভাষায় নির্মিত এ সিনোটি নির্মাণে ব্যায় হয়েছে ৫৫ কোটি রুপি আর আয় হয়েছে ৪৫৯.৯৬ কোটি রুপি।

৮, ‘ধুম ৩’
ভারতীয় এ্যাকশন থ্রিলার ছবি ‘ধুম ৩’। আদিত্য চোপড়ার প্রযোজনায় বিজয় কৃষ্ণ আচার্যর পরিচালনায় সিনেমাটিতে আমির খান এর বিপরীতে ক্যাটরিনা কাইফকে বেছে নেওয়া হয়। সিনেমাটি ২০ ডিসেম্বর ২০১৩ সালে মুক্তির ২ দিন পরেই ২০১৩ সালের সবচেয়ে ব্যাবসাসফল ছবি হিসেবে ঘোষণা করা হয়। মোট আয় করে ৫৫৫.৮৯ কোটি রুপি।

৯, ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’
সিনেমাটি ২০১২ সালের ‘এক থা টাইগার’ চলচ্চিত্র ধারাবাহিকের দ্বিতীয় পর্ব। সালমান খান এবং ক্যাটরিনা কাইফের স’ঙ্গে প্রধান ভূমিকাতে অভিনয় করছেন পরেশ রাওয়াল, গিরিশ কর্ণদ, সুদীপ ও গবি চাহাল। ভারতীয় গু’প্তচর থ্রিলার ধর্মী এ সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন আলী আব্বাস জাফর এবং প্রযোজনায় করেছেন আদিত্য চোপড়া। এতে নির্মাণ ব্যয় হয়েছিলো ২১০ কোটি রুপি আর লাভ হয়েছে ৫৪৫.৮৩ কোটি রুপি।

১০, ‘সঞ্জু’
সিনেমাটি সঞ্জয় দত্তের জীবনী, তার পিতার সাথে তার সম্প’র্ক, ম’দ্যপ এবং ধীরে ধীরে মা’দকাসক্ত হয়ে পড়া, ১৯৯৩-এর বম্বে বো’মা হা’মলায় জড়িত থাকার জন্য গ্রে’ফতার, চলচ্চিত্র শিল্পে ফিরে আসা এবং অবশেষে তার কা’রাগারের মেয়াদ সম্পূর্ণ করার পর মুক্তি অবলম্বনে নির্মিত। ছবিতে সঞ্জয় দত্তের ভূমিকায় অভিনয় করেন রনবীর কাপুর। ‘সঞ্জু’ প্রযোজনা করেনে বিধু বিনোদ চোপড়া ও রাজকুমার হিরানী এবং রাজকুমার হিরানী পরিচালনা করেন। ২০১৮ সালে মুক্তি পাওয়া ১৬১ মিনিটের হিন্দি ভাষার এই সিনেমাটি নির্মাণে ব্যয় হয় ১০০ কোটি রুপি এবং আয় হয় ৫২৮.৪৭ কোটি রুপি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here