শ্বশুর মা’রা গেলে স’হবাস কি নি’ষেধ?

0
163

এক ব্যক্তি প্রশ্ন করেছেন, শ্বশুর মা’রা যাবার পর স্ত্রীর স’ঙ্গে শা’রীরিক সম্প’র্কে কোনো বিধিনি’ষেধ আছে কি? অনেকেই তাকে বলেছে, চল্লিশ দিন পর্যন্ত এ থেকে বিরত থাকতে হবে। তবে এর কোন নির্ভরযোগ্য ত’থ্য আছে কি?

উত্তর: শো’ক পালন হিসেবে সর্বোচ্চ তিনদিন পর্যন্ত বিরত থাকতে পারেন। তবে এটাও জরুরি নয়। কিন্তু এর চেয়ে বেশি দিন স্বা’মী ছাড়া অন্য কোন আত্মীয়ের জন্য শো’ক পালন করার অনুমতি নেই। পিতা মা’রা গেলে চল্লিশ দিন পর্যন্ত স্ত্রী স’হবাস করা যাবে না, এই মর্মে যে কথাটি শুনেছেন তা সম্পূর্ণ গলদ ও ভু’ল। শরীয়তে এর কোনো ভিত্তি নেই।

যায়নাব (রাঃ) বলেছেন, যখন নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর সহধর্মিনী উম্মে হাবীবা (রাঃ) এর পিতা আবূ সুফিয়ান ইন্তেকাল করেন তখন আমি তার কাছে গেলাম। আমি দেখতে পেলাম যে, উম্মে হাবীবা (রাঃ) হলদে বর্ণের মিশ্রিত সুগন্ধি আনালেন অথবা অন্য কোন প্রসাধ’নী চেয়ে পাঠালেন। এরপর তা থেকে একটি বালিকাকে নিজ হাতে লাগিয়ে দিলেন। এরপর তিনি তার দুই কপালে হাত মুছে নিলেন।

পরে উম্মে হাবিবা বললেন, আল্লাহর কসম! আমার সুগন্ধি ব্যবহারের কোন প্রয়োজন ছিল না। তবে আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে মিম্বরে দাঁড়িয়ে বলতে শুনেছি, যে ম’হিলা আল্লাহ ও পরকালে ঈমান রাখে, সে ম’হিলার জন্য তার কোন আত্নীয়ের মৃ’ত্যুতে তিন দিনের বেশী শো’ক পালন করা হালাল নয়। তবে বিধবা স্ত্রী তার স্বা’মীর মৃ’ত্যুতে চার মাস দশদিন শো’ক পালন করবে। [সহীহ মু’সলিম, হাদীস নং-১৪৮৬]

আবূ হুরাইরাহ্ (রাঃ) হতে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, কোন লোক যদি নিজ স্ত্রী’কে নিজ বিছানায় আসতে ডাকে আর সে অস্বীকার করে এবং সে ব্যক্তি স্ত্রীর উপর দুঃখ নিয়ে রাত্রি যাপন করে, তাহলে ফেরেশতাগণ এমন স্ত্রীর উপর সকাল প্রকার লানত দিতে থাকে। [সহীহ বুখারী, হাদীস নং-৩২৩৭]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here