দায় নয়, কন্যা স’ন্তান হলে আয়ু বাড়ে পিতার

0
138

সালটা ২০২০ হলেও প্রাচ্যের অনেক তৃতীয় বিশ্বের দেশেই পরিবারে কন্যা স’ন্তান জ’ন্মালে শাঁখ বাজে না, কয়েক সন্ধ্যায় বাতি জ্ব’লে না। সদ্য বাবাদের পিতৃত্বের আ’নন্দ মুছে যায়, কন্যা স’ন্তানের জ’ন্মলগ্ন থেকেই তাঁরা হয়ে ওঠেন কন্যাদায়গ্রস্ত পিতা।

ভারতের পিছিয়ে পড়া বেশ কিছু গ্রামেও ছবিটা খুব কিছু আলাদা না। তবে ইউরোপে ঘটছে উল্টো ঘ’টনা। একাধিক গবে’ষণায় দেখা গেছে, কন্যা স’ন্তানের বাবার আয়ু তুলনামূ’লক বেশি হয়। তারা অন্য পুরু’ষদের চেয়ে বেশিদিন বাঁচেন। অবশ্য লি’ঙ্গ নির্বিশেষে স’ন্তান জ’ন্ম’দান ম’হিলাদের আয়ু কমিয়ে দেয় এ ব্যাপারে প্রায় সব গবেষক একমত।

পোল্যান্ডের জাগিলোনিয়ান ইউনির্ভাসিটির সম্প্রতিক এক গবে’ষণায় দেখা গেছে, পুত্র স’ন্তান তাদের পিতার আয়ুর ও’পর কোনো প্রভাব ফে’লে না। তবে কন্যা স’ন্তানের সংখ্যার স’ঙ্গে পিতার লম্বা আয়ুর সমানুপাতিক সম্প’র্ক রয়েছে।

গবে’ষণার রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, পুরু’ষের কন্যা স’ন্তানের সংখ্যা যত বেশি, আয়ুও ততই বেশি। সুনির্দিষ্টভাবে বলতে গেলে, প্রতিটি কন্যা স’ন্তানের জন্য বাবা ৭৪ সপ্তাহেরও বেশি অতিরিক্ত আয়ু পান।

২ হাজার ১৪৭ জন মা এবং ২ হাজার ১৬৩ জন বাবার ও’পর সমীক্ষা চা’লানো হয়েছিল। একটি স’ন্তান জ’ন্মের পর বাবার মা’নসিক ও শ’রীরিক অবস্থা কেমন থাকে সেটি পর্যবেক্ষণ করাই ছিল এ গবে’ষণার মূ’ল লক্ষ্য।

এদিকে আমেরিকান জার্নাল অব হিউম্যান বায়োলজিতে প্রকাশিত আরেকটি গবে’ষণায় দেখা গেছে, পুত্র বা কন্যা স’ন্তানের জ’ন্ম মায়ের স্বাস্থ্যের ও’পর নেতিবাচক প্রভাব ফে’লে এবং আয়ু কমায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here