ক’রোনার মন্দাকালে ভিডিও দেখে দ্বীপ কিনলেন তিনি!

0
197

আয়ারল্যান্ডের উপকূলের একটি দ্বীপ বিক্রি হয়েছে ৬৩ লাখ ডলারে। দ্বীপটিতে ৩টি বিচ, সাতটি বাড়ি ও বিস্তৃত প্রকৃতি রয়েছে। তবে, কেনার আগে স্বশ’রীরে ওই দ্বীপে যাননি ক্রেতা।

হর্সল্যান্ড নামের ১৫৭ একর জমির ওই দ্বীপটি আয়ারল্যান্ডের দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে অবস্থিত। এটি কেনাবেচা হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপে ছবি দেখিয়ে ও দর কষাকষি করে। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) মা’র্কিন সংবাদ সংস্থা সিএনএন দ্বীপ বিক্রির খবর দিয়েছে।

ওই দ্বীপ কিনেছেন একজন ধ’নী ইউরোপীয়। তিনি তার নাম প্রকাশ করেননি। কেনার আগে তিনি এর রূপসুধা শুধু ভিডিওতেই দেখেছেন। দ্বীপের সবুজ ভূমি, একটি মূ’ল বাড়ি ও কয়েকটি অতিথি কটেজ থেকে সহজেই দেখা যায় আটলান্টিক মহাসাগর।

১৯শ’ শতকে এই দ্বীপটি তামা (কপার) শিল্পের ছোট্ট একটি বাড়ি ছিল। ১৮৪১ সালে এই দ্বীপের জনসংখ্যা সর্বোচ্চে পৌঁছেছিল, ১৩৭ জনে দাঁড়িয়েছিল সেসময়। এরপর ১৯৬০ সালে মনটেগু রিয়েল স্টেট কোম্পানির এজেন্টরা তাদের উঠিয়ে দেয়। বর্তমানে এটি ফেরি ও নৌকার জন্য ব্যক্তিগত জেটি, হেলিপ্যাড, খেলাধুলার পরিসর, ব্যায়ামাগর ও টেনিসকোর্ট হিসেবে ব্যবহার হয়।

স্বয়ংসম্পূর্ণ এই দ্বীপটিতে বিদ্যুৎ, পানি ও পয়ঃনিষ্কাশনের সুবিধা রয়েছে। রয়েছে দ্বীপের এপাড়-ওপাড় সড়ক ব্যবস্থা। দ্বীপটির মূ’ল বাড়ি সাড়ে ৪ হাজার স্কয়ার ফি’টের। সেখানে ৬টি শোবার ঘর (বেডরুম) আছে। আর ছোট ছোট গেস্টহাউজগুলো এর থেকে অল্প দূরে অবস্থিত।

দ্বীপটি বিক্রির পর মনটেগু রিয়েল স্টেটের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী থমাস বালাসেভ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, হর্সল্যান্ড দ্বীপটি একটি অনন্য সম্পদ। ক’রোনাকালে দ্বীপটি বিক্রি করা ছিল অবশ্যই একটি চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার। তাই স্বাভাবিকভাবেই আমরা খুবই আ’নন্দিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here