এবার ডাঃ সাবরিনার সহকর্মীরা দিলেন চমকে উঠার মত ত’থ্য

0
131

রেজিস্টার্ড চিকিৎসক হয়েও নিজের খেয়াল-খুশিমত হাসপাতালে আসতেন ডা. সাবরিনা। নিজেকে দেশের প্রথম না’রী কার্ডিয়াক সার্জন দাবি করতেন তিনি। সহকর্মীদের স’ঙ্গে দুর্ব্যবহার, মিথ্যাচার,

অ’নৈতিক সুবিধা নেয়াসহ নানা অভিযোগ জেকেজি চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনার বি’রুদ্ধে। এ অভিযোগের বি’ষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি ডা. সাবরিনা। তার কর্মকাণ্ডে বিব্রত জাতীয় হৃদরো’গ ইনস্টিটিউট প্রশাসন। তিন দিনের মধ্যে লিখিত ব্যাখ্যা দেয়ারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে ডা. সাবরিনাকে।

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেকে বাংলাদেশের প্রথম না’রী কার্ডিয়াক সার্জন হিসেবে দাবি করে আসছিলেন ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী। সময় সংবাদের মুখোমুখি হয়েও এ দাবির পক্ষে অনড় থাকেন তিনি।

যদিও তার এ দাবিকে পুরোপুরি মিথ্যা বলে আখ্যা দিলেন হৃদরো’গ ইনস্টিউটিউটের কার্ডিয়াক সার্জারি বিভাগের প্রধান এবং তার অন্য সহকর্মীরাও।

একজন সহকর্মী বলেন, কথাটা একদমই যুক্তিস’ঙ্গত না। প্রথম না’রী কার্ডিয়াক হিসেবে এই হাসপাতাল থেকে পাস করেছেন শিমু পাল আপু। তিনি এখন পরিবারসহ যুক্তরাষ্ট্র থাকেন।

হৃদরো’গ ইনস্টিটিউটের রেজিস্ট্রার চিকিৎসক হয়েও নিয়মিত দায়িত্ব পালন না করা, নিজের ইচ্ছেমত চলা, অ’নৈতিক সুবিধা নেয়া, এমনকি অধীনস্থদের সাথে দুর্ব্যবহার করাসহ অনেক অভিযোগ রয়েছে তার বি’রুদ্ধে।

সময় সংবাদকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সাবরিনার দাবি, জেকেজির সিইও আরিফ চোধুরীর স’ঙ্গে অনেক আগেই বিচ্ছেদ হয়েছে তার। কিন্তু প্রশ্ন দাঁড়িয়েছে, বিচ্ছেদের পরও কেন স্বা’মীর সাথে জেকেজির হয়ে কাজ করেছেন তিনি।

তিনি বলেন, ওনার সাথে আমার বনিবনা হচ্ছিলো না। গত আড়াই মাস ধরে আমি আমার বাবার বাসায় অবস্থান করছি।
যদিও পরদিন সাবরিনার চেম্বারে গিয়ে দেখা যায়, স্বা’মী আরিফের নামের সাথেই যুক্ত করেই তার নাম রয়েছে।

ফের কথা বলতে গেলে ডাক্তার সাবরিনা সময় সংবাদের ক্যামেরার সামনে বলেন, আমিও এ মুহূর্তে আপনার স’ঙ্গে কথা বলব না। হাসপাতালের ডিরেক্টর স্যার যদি বলেন কথা বলতে কাজ প্রস’ঙ্গে তখন কথা বলব।

সাবিরনার এমন অনেক কর্মকাণ্ডের বি’ষয়ে বিব্রত জাতীয় হৃদরো’গ ইনস্টিটিউটের প্রশাসন। তিন দিনের মধ্যে এসব বি’ষয়ে লিখিত ব্যাখ্যা দেয়ার নির্দেশও দেয়া হয়েছে।

কোনো অ’নৈতিক কর্মকাণ্ডের দায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নেবে না বলেও জানিয়েছেন হৃদরো’গ ইনস্টিটিউটের ভারপ্রা’প্ত পরিচালক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here