পুরু’ষের কোন অ’ঙ্গটি না’রীদের বেশি পছন্দের… জানলে চমকে যাবেন …

0
258

না’রীদের কাছে আ’কর্ষণীয় ও সুন্দর হয়ে উঠতে পুরু’ষদের কোন জুড়ি নেই। বরং বার বার তারা চেষ্টা করে না’রীদের কাছে কিভাবে আরো বেশী আ’কর্ষণীয় হয়ে ওঠা যায়। এই চেষ্টা চলে আসছে আদিমকাল থেকেই এবং পরবর্তী সময়েও যে এই চেষ্টা থেমে যাবে সেটার কোন ঠিক নেই। কিন্ত এই চেষ্টা করতে করতে পুরু’ষেরা মাঝে মধ্যেই বুঝতে পারেনা তারা ঠিক কি করবে।

কেউ চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ায়, কেউ দাড়ি বাড়িয়ে ভাবতে থাকে সে না’রীর কাছে আর একটু সুদর্শন হয়ে উঠলো কি। সাথে চলে জে’ল স্পাইক এবং নানা বাহারি পদ্ধতি। কিন্তু যুগ যুগ ধরে পুরু’ষেরা কনফিউজড, তারা সবসময়ই ভাবে কিভাবে সে না’রীর মন জিতে নেবে ?

এবার আসা যাক নানাজনের নানা মতের কথায়। অনেকের মতে ছেলেদের চুলের স্টাইল মে’য়েদের পছন্দ, অনেকের মতে হাসি, অনেকের মতে চোখ। যারা জিম ফ্রিক তাদের জন্য সিক্স প্যাক অ্যাব ওয়ালা বডি। কিন্তু আসল যে সমাধান তা কারোরই জানা নেই।

আসুন আপনাদের জানানো যাক পুরু’ষের দে’হের কোন অ’ঙ্গ না’রীদের বেশি পছন্দের। সম্প্রতি টুইটারে একটি ছবি প্রকাশ পেয়েছে। ছবিটি বিশেষ কিছু নয়, সামান্য একটি হাত। তাতে সামান্য আচড়ের দাগ। ক্যাপশনে লেখা আছে সেই সমস্ত না’রীদের জন্য যারা পুরু’ষের হাত ভালোবাসেন।

শুনলে বিশ্বাস করবেন না, সেই হাতের ছবি শেয়ার হয়েছে ২৮ হাজার। রি-টুইট হয়েছে ৬০০০ এর বেশি। যাদের নিয়মিত যাতায়াত টুইটারে তারাই জানেন খুব কম সংখ্যক টুইট এত বেশী আলোড়ন সৃষ্টি করতে পারে। শুধু না’রী নয়, এই হাতের ছবি টুইট করেছেন পুরু’ষেরাও। তারা রিটুইটে নিজেদের হাতের ছবি দিয়ে বলেছেন আমাদের হাতই বা কি দোষ করলো।

তবে আশ্চর্যজনকভাবে দেখা গেছে এই টুইটে না’রীদের বক্তব্য বেশী। তাদের কমেন্টেই বোঝা যাচ্ছে তারা হাতের ছবি নিয়ে কতটা সেন্সিটিভ। তাদের অনেকের মতে শিরা উপশিরাজুক্ত হাত দেখলে শিহরণ জাগে তাদের। আবার অনেকের মতে এই হাতে থাকা আচড়ের দাগ তাদের বেশ লেগেছে তাই তারা এই হাতের মালিকের সম্প’র্কে জানতে আ’গ্রহি হয়ে উঠেছে।

বিজ্ঞানও বলছে এই একই কথা। না’রীরা সত্যি পুরু’ষদের শিরা উপশিরা যুক্ত হাত দেখলে শিহরিত হয়। ফ্লোরিডা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক পরীক্ষায় উঠে এসেছে যে তর্জনীর থেকে অনামিকার উচ্চতা বড় হলে সেই পুরু’ষ বেশি স’ন্তান প্রজননে স’ক্ষম। এইরকম পুরু’ষকেই তো চাইবেন না’রীরা…

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here