গো’পনে স্ত্রী`কে তা`লাক, ৩ মাস পর স্বা’মীর বি`রুদ্ধে ধ“র্ষণ মা`মলা

0
104

জ`য়পু`রহাটে যৌ`তুকের দা`বিতে নি`র্যা`তন ও তা`লাক দেয়ার পর স্বা`মীর বি`রুদ্ধে ধ`র্ষ`ণের মা`মলা করেছেন এক না’রী। স`হায়তাকারী হিসেবে মা`মলায় আ`সামি করা হয়েছে শ্ব`শুর, শা`শুড়িকেও।

ওমান প্র`বাসী আবু হা`সানের স’ঙ্গে মো`বাইল ফো`নে স`ম্পর্ক হয় আ`শুলিয়ার প`লা’শবা`ড়ি গ্রা`মের এক ত`রুণীর। প`রিবারের আ`পত্তি সত্ত্বেও তিন মাস আগে হা`সানের স’ঙ্গে ঘর বাঁ`ধেন তিনি। বি`য়ের কি`ছুদিন পরই যৌ`তুকের দা`বিতে স্ত্রী`কে শা`রীরিক ও মা`নসিক নি`র্যাতন শুরু করে হাসান।

এ নিয়ে গ্রামে এ`কাধিকবার বৈ`ঠক হলেও মে`লেনি স`মাধান। উ`ল্টো মো`হরানার টাকা ও স্ব`র্ণালঙ্কারসহ পা`ওনা প`রিশোধের কথা বলে তা`লাকপ`ত্রে স্বা`ক্ষর নিয়ে তা`ড়িয়ে দেয়া হয় ওই গৃ`হবধূকে। দেশের একটি বে`স’রকারি টে`লিভিশনের অ`নলাইন ভা`র্সনে এ খবর প্র`কাশ করা হয়েছে।`নি’র্যাতনের শি`কার গৃ’হবধূ রা`ফিয়া আ`ক্তার রাফি বলেন, ‘২ লাখ টাকা যৌ`তুক চায়।

না দেয়ার কা`রণে আমাকে বি`ভিন্নভাবে নি`র্যা`তন করে। তিন মাস আগে আমাকে ডি`ভোর্স দেয়। এটা জানার পরে আমি থানায় এসে `ধ`র্ষ`ণ মা`মলা করি।’অ`সহায় গৃ`হবধূ`র ও’পর নি`র্যা`তনের প্র`তিবাদ করায় গ্রা`মবাসীর বি`রুদ্ধে উ`ল্টো চাঁ`দাবাজির মা`মলা দেয় হা`সানের প`রিবার।জয়পুরহাট না’রী জা`গরণের স`ভাপতি শা`ম্মীম আ`জিজ সাজ বলেন, ‘মে`য়েটিকে তারা গো`পনে ডি`ভোর্সও দিয়ে দেয়।

এরপর তিন মাস সং`সার করার পর মে’য়েটি জানতে পারে তাকে ডি`ভোর্স দেয়া হয়েছে। এজন্য আ`মরা ছে`লেটির বি`রুদ্ধে ধ`র্ষণ মা`মলা করেছি।’এরইমধ্যে হা`সানের বি`রুদ্ধে ধর্ষ“ণ মা`মলা করেছেন গৃ`হবধূ। মা`মলায় আ`সামি করা হয়েছে শ্ব`শুড়-শ্বা`শুড়িকেও। ত’দন্ত সা`পেক্ষে এ ঘ`টনার আ`ইনি ব্যবস্থা নেয়ার আ“শ্বাস জয়পুরহাট পু`লিশ সুপার মোহাম্ম’দ সা`লাম কবিরের।

তিনি বলেন, ‘যেহেতু তা`লাক দেয়ার পর স্বা’মী-স্ত্রীর সং`সার বা মেলামেশার সু`যোগ নেই, সে`হেতু সে একটি ধ“র্ষণ মা`মলা করে। আমরা মা`মলাটি রে`কর্ড করেছি। সাক্ষ্য প্রমাণের ভি“ত্তিতে আমার দো`ষীর বি`রুদ্ধে আ`ইনগত ব্যবস্থা নিবো।’ তবে এখনো আ`সামিরা ধরা ছো`য়ার বাইরে থাকায় তাদের দ্রু’ত গ্রে`ফতার ও দৃ`ষ্টান্তমূ’লক শা`স্তি চান গ্রা`মবাসী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here