নাতির ধ’র্ষণের শি’কার দাদি, দুজনেই উধাও

0
179

নাতির ধ’র্ষণের শি’কার দাদি, দুজনেই উধাও
পাবনার ভাঙ্গুড়ায় দাদিকে ধ’র্ষণের অ’ভিযোগ উঠেছে নাতি জায়েদুর ইসলামের বি’রুদ্ধে। গত বুধবার বিকালে উপজে’লার অষ্টমনিষা ইউনিয়নের শাহানগর গ্রামে এই ঘ’টনা ঘটে। খবর পেয়ে ওই দিন রাতে পু’লিশ ধ’র্ষিতার বাড়ি পরিদর্শন করে। তবে ধ’র্ষক নাতির হু’মকির কারণে ঘ’টনার পরপরই ওই বৃ’দ্ধা বাড়ি ছেড়ে আত্মগো’পন যান। অ’ভিযোগ না থাকায় পু’লিশ ধ’র্ষককে আ’টক না করে চলে আসে। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যে সৃষ্টি হয়েছে।

ধ’র্ষিতার পরিবারের সদস্যরা জানায়, বুধবার বিকালে বাড়িতে লোকজন না থাকার সুযোগে এক স’ন্তানের জনক জায়েদুর তার আপন দাদিকে জো’রপূর্বক ধ’র্ষণ করে। পরে বৃ’দ্ধ দাদি বি’ষয়টি তার ছেলেদের জানায়। এ সময় ছেলেরা বি’ষয়টি নিয়ে পু’লিশের কাছে অ’ভিযোগ দেওয়ার সি’দ্ধান্ত নেয়। কিন্তু জায়েদুর ও তার বাবার হু’মকিতে ওই দিন রাতেই বাড়ি থেকে অন্যত্র চলে যেতে বা’ধ্য হয় বৃ’দ্ধ দাদি। এ নিয়ে পরিবারের অন্য ভাইদের স’ঙ্গে জায়েদুরের বাবার বি’বাদ হয়। এরপর ওই দিন রাত ১১টার দিকে ভাঙ্গুড়া থানা পু’লিশ খবর পেয়ে ধ’র্ষিতার বাড়িতে যায়। কিন্তু পু’লিশ ধ’র্ষিতাকে বাড়িতে না পেয়ে এবং কেউ ধ’র্ষণের অ’ভিযোগ না করায় ধ’র্ষককে আ’টক না করে চলে আসে। পু’লিশ চলে গেলে ওই রাতেই জায়েদুর ও তার তার বাবা-মা সহ বাড়ি থেকে পালিয়ে অন্যত্র চলে যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ধ’র্ষিতার এক ছেলে জানান, বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে মুখে গামছা গুঁজে দিয়ে জো’রপূর্বক আমার বড় ভাইয়ের ছেলে তার দাদিকে ধ’র্ষণ করে। বি’ষয়টি নিয়ে আমরা থানা পু’লিশকে জানাই। কিন্তু পু’লিশ আসার আগেই জায়েদুরের হু’মকিতে মা পালিয়ে যায়। কিন্তু আমরা এর বিচার চাই।

ভাঙ্গুড়া থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, ঘ’টনা জানার পরই আমি নিজেই পু’লিশ ফোর্স নিয়ে ধ’র্ষিতার বাড়িতে যাই। কিন্তু এর আগেই ধ’র্ষিতা বাড়ি থেকে উধাও হয়ে যায়। ফলে ভি’কটিম নি’খোঁজ থাকায় এ বি’ষয়ে মা’মলা দায়ের করা সম্ভব হয়নি। তাই ধ’র্ষককে আ’টক করা হয়নি। তবে কেউ লিখিত অ’ভিযোগ দিলে ধ’র্ষণের অ’ভিযোগের বি’ষয়ে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here