ছাত্রলীগ বাচ্চা ছেলে ওদের শা’স্তি দেয়া অন্যায় : জাফর ইকবাল

0
229

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) শিক্ষকদের ও’পর হা’মলার ঘ’টনায় ছাত্রলী’গের কোনো দো’ষ নেই মন্তব্য করে দলটির নে’তাকর্মীদের শা’স্তি দেয়াকে এক ধরনের অ’ন্যায় বলে মন্তব্য করেছেন জনপ্রিয় লেখক এবং ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুহম্ম’দ জাফর ইকবাল। বুধবার শাবি ক্যাম্পাসে সাংবাদিকদের কাছে দেওয়া এক প্রতিক্রিয়ায় জাফর ইকবাল ছাত্রলী’গের নে’তাকর্মীদের ‘বাচ্চা ছেলে’ বলেও অভি’হি’ত করেন।

রোববার সকালে আন্দো’লনরত শিক্ষকদের ও’পর হা’ম’লার ঘ’টনায় সোমবার রাতে ৩ ছাত্রলী’গ নে’তাকে দল থেকে ব’হি’ষ্কার করে কেন্দ্র এবং এর পরদির মঙ্গলবার চার ছাত্রলী’গের কর্মীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক ব’হি’ষ্কার করে বিশ্বদ্যিালয় প্রশাসন। ওই দিন ছাত্রলী’গের নে’তাক’র্মীদের হাতে

জাফর ইকবালের স্ত্রী ড. ইয়াসমীন হকও লা’ঞ্ছিত হন।

হা’ম’লার ঘ’টনায় ছাত্রলী’গ নে’তাক’র্মীদের শা’স্তি দেয়ায় ক’ষ্ট পেয়েছেন জানিয়ে খ্যা’তনা’মা এ লেখক ও শিক্ষাবি’দ বলেন, ‘শিক্ষকদের ও’পর কে হা’ম’লা করেছে? ছাত্রলী’গের ছেলেরা? না। এরাতো ছাত্র, আমাদের ছাত্র।

এত কমব’য়সী ছেলে, এরা কি বুঝে? ওদেরকে আপনি যাই বোঝাবেন ওরা তাই বুঝবে। কাজেই আমি যখন দেখলাম যে তিনজনকে দল থেকে বহি’ষ্কা’র করা হয়েছে আর চারজনকে শা’বিপ্র’বি থেকে বা’হি’ষ্কার করা হয়েছে; এখন আমার লিটারালি (আ’ক্ষ’রিক অর্থে) ওদের জন্য মা’য়া লাগছে। আহা বেচা’রারা!

শিক্ষকদের ও’পর হা’ম’লার পর প্র’চ’ণ্ড ক্ষো’ভ দেখিয়ে বৃষ্টিতে ভিজে প্র’তিবা’দ করা এই শি’ক্ষ’ক আরও বলেন, যারা ছাত্রলী’গকে ব্যবহার করছে, কেউ তাদের কাছে যাচ্ছে না কেন? যারা এ বাচ্চা ছে’লেগু’লোকে, মি’সগা’ইডে’ড করেছে, এখন তারাই বি’প’দে পড়েছে।

ছাত্র’ত্ব বা’তিল হবে, শা’স্তি হবে। ওরা কী দোষ করেছে? কাজেই, এখন আমার খুবই খা’রাপ লাগছে। এই ছাত্রলী’গের ছেলেদের শা’স্তি দেয়াটা এক ধরনের অ’ন্যা’য়। তিনি বলেন, যে তাদেরকে পাঠিয়েছে তাদেরকে শা’স্তি দেন।

শাবিপ্রবিতে শিক্ষকদের ও’পর ছাত্রলী’গের হা’ম’লার ঘ’টনায় দেশের সর্ব’ত্র তো’লপা’ড় সৃষ্টি হলে ঢাকায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলী’গের এক অনুষ্ঠানে প্রধানম’ন্ত্রী ও আওয়ামী লী’গ সভানে’ত্রী শেখ হাসিনার সংগঠনে কোনো আ’গা’ছা থাকলে তা পরি’ষ্কার করে ফেলতে ছাত্রলী’গকে আ’হ্বা’ন জানিয়েছিলেন।

এ প্রস’ঙ্গে জাফর ইকবাল বলেন, এরা আমাদের ছাত্র। এদের আমাদের কাছে পাঠিয়ে দেন। আমরা ওদের মাথায় হাত বুলিয়ে, ওদের স’ঙ্গে কথা বলে, ওদেরকে ঠিক জায়গায় নিয়ে আসতে পারবো।

প্রধানম’ন্ত্রী বলেছেন আগাছাকে দূর করে দিতে। আমি বলি যে, না। আগাছাকে আমরা ফুলগাছে পরিণত করবো। সম্ভব। আমাদের ছাত্র; আমাদের কাছে পাঠিয়ে দেন। আমরা ওদেরকে ঠিক করে দেবো।

যদিও শিক্ষকদের ও’পর হা’ম’লার পর প্রতি’বা’দ করে প্রথম’দিন তিনি বলেছিলেন, আমার দুঃখ হয়, যে জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে মু’ক্তিযু’দ্ধ হয়েছিল সেই জয় বাঙলা বলে ছাত্রলী’গ শিক্ষকদের পে’টা’লো। এরা যদি আমার ছাত্র হয়ে থাকে, তাহলে এখন আমার গ’লা’য় দ’ড়ি দিয়ে ম’রে যাওয়া উচিত। কারণ আমার ছাত্রদের আমি মানুষ করতে পারিনি।

এছাড়া অন্য এক প্রশ্নের জবাবে মুহম্ম’দ জাফর ইকবাল উপা’চার্য আমিনুল হক ভূঁইয়ার ক’ঠোর স’মালো’চনা করে তার প’দত্যা’গের দাবি করেন। তিনি বলেন, উপা’চার্যের এখন বি’দা’য় নেয়া উচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here