আপন ভাই-বোনের বিয়ে নিয়ে দেশ জুড়ে তোলপাড়!

0
728

ঘ’টনাটি জয়পুরহাট জে’লার ক্ষেতলাল উপজে’লায় আর যবনিকা ঘটেছে বগুড়ার শি’বগঞ্জ উপজে’লার কিচক ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের একই বাবার ঔরসজাত স’ন্তান দু‘ভাই-বোন বিয়ে করেছেন। বিয়ের আগে অ’নৈতিক মেলামেশার পরও ক্ষান্ত হননি একই পরিবারের ঔরসজাত দুই স’ন্তান।

দু‘ভাই-বোনের (অবশ্য সৎ) বিয়ের ঘ’টনা নিয়ে দেশ জুড়ে চাঞ্চল্য তৈরী হয়েছে। স্থানীয়দের থেকে জানতে পারি, ক্ষেতলাল উপজে’লার তারাকুল গ্রামে বসবাসকারি আব্দুর রশিদের ঔরসজাত স’ন্তান প্রথম স্ত্রী’র ছে’লে সিজু (৩৫) পেশায় ট্রাক ড্রাইভা’র এবং দ্বিতীয় স্ত্রী’র মেয়ে রাজিয়া সুলতানা (২৬), দু‘ভাই-বোনের পা’লিয়ে গিয়ে বিয়ে করে ফে’লে।

ভাই-বোনের বিয়ে ঘ’টনা সারা দেশে ভাই’রাল হওয়ার পর তাদের বি’রুদ্ধে বিচারের দাবি উঠে।আর যাতে কোন লোক এই ধরনের কাজ করার সাহস না পায় তার জন্য ক’ঠোর শা’স্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

দেশের র্শীর্ষস্থানীয় আলেম-ওলামা’রা বলেন এই বিয়ে কোন ভাবে বৈধ নয়। স্থানীয়রা এই প্রতিবেদককে জানান, আব্দুর রশিদ প্রথম স্ত্রী’কে নিয়ে বগুড়া জে’লার শি’বগঞ্জ উপজে’লার কিচক ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামে বসবাস করার সময় ছে’লে সিজু জ’ন্ম নেয়।

প্রথম স্ত্রী’র সাথে বিচ্ছেদ হওয়ার পর, আব্দুর রশিদ জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজে’লার তারাকুল গ্রামের মৃ’ত আব্দুল মজিদের মেয়ে মাহমুদা খাতুনকে দ্বিতীয় স্ত্রী’ হিসেবে বিয়ে করে সংসার শুরু করেন। সেই সংসারে জ’ন্ম নেয় মেয়ে রাজিয়া সুলতানা। বাবা তাদের উপযু’ক্ত বয়েসে দুজনকেই বিয়ে দেয়, বর্তমানে তাদের সংসারে ছে’লে-মে’য়ে রয়েছে। দুই ভাই- বোন গো’পনে পরকী’য়ায় জড়িয়ে পড়েন।

বাবা আব্দুর রশিদ বলেন, নিজের জ’ন্ম দেয়া স’ন্তানরা এমন কর্মকা’ণ্ডে জড়িয়ে পড়বে তা কোনো বাবা-মা স’হ্য করতে পারবে না। এমন ঘ’টনা জানার পর থেকেই আমি আর বাইরে বের হতে পারছি না। আব্দুর রশিদ আরো জানান, এ ঘ’টনার পর তিনি ছে’লে-মেয়ে দু‘জনকেই আইনগত ত্যাজ্য করেছেন।

রাজিয়ার আগের স্বা’মী জয়পুরহাট পৌর শহরের বিশ্বা’সপাড়া এলাকার বাসিন্দা ও জয়পুরহাট পৌরসভা’র অফিস সহায়ক মজনু হোসেন জানান, ২০০৬ সালে রাজিয়ার স’ঙ্গে আমা’র পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়।

বর্তমানে আমাদের নয় (৯) বছরের রিয়াদ হাসান ও সাত (৭) বছরের রাকিবুল হাসান নামে দুইটি ছে’লে স’ন্তান আছে। আমি ছয় মাস আগে জানতে পারি আমা’র শ্বশুরের আগের স্ত্রী’র মেজ ছে’লে সিজুর স’ঙ্গে রাজিয়ার প্রে’মের স’ম্পর্ক রয়েছে।

সবচেয়ে লজ্জার বি’ষয় হলো গত ১৪ অক্টোবর দুই ভাই-বোন পা’লিয়ে গিয়ে বিয়ে করেছে। শি’বগঞ্জ উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা (ইউএনও) মোঃ আলমগীর কবির বলেন, এমন ঘ’টনা কখনো শুনিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here