কেমন আছে শিপ্রা ও তার পরিবার

0
84

কক্সবাজারে পু’লিশের গু’লি’তে নি’হত অবস’রপ্রা’প্ত সে’না কর্মক’র্তা সিনহা মো’হাম্ম’দ রাশেদ খানের স’ঙ্গে ‘ডকুমে’ন্টারি’ নির্মাণে যু’ক্ত শিপ্রা দে’বনা’থের ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও নিয়ে সামা’জিক যো’গাযোগ মাধ্যমে যেভা’বে প্রচার চা’লানো হচ্ছে, তাতে হ’তাশ হ’য়ে পড়েছেন তার স্বজ’নরা।

এই ঘ’টনায় তি’নি নিজেও মানসি’ক’ভাবে বি’পর্যস্ত জানিয়ে শিপ্রা বলে’ছেন, “আমি কী’ভাবে আছি আপ’নারা হয়ত বুঝতে পারছেন, আমা’র নিঃশ্বা’স নিতে ক’ষ্ট হচ্ছে।” যারা এসব ছবি ছ’ড়িয়ে’ছেন তা’দের বি’রু’দ্ধে আ’ই’নগত ব্যবস্থা নেবেন কি না তাও জানি’য়ে’ছে তার পরি’বার।

ঢাকার স্ট্যা’মফোর্ড বিশ্ববি’দ্যালয়ের ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডি’জের ছা’ত্রী শিপ্রা দেবনাথের স’ঙ্গে সিন’হার পরিচয় দেড় বছর আগে সুনাম’গঞ্জের টাঙ্গু’য়ার হাওড়ে ঘুরতে গিয়ে। পরিচয় থেকে বন্ধু’ত্বের এক পর্যায়ে ভ্রমণ বি’ষয়ক ডকুমে’ন্টারি নি’র্মাণের সি’দ্ধান্ত নেন তারা।

সেই পরি’ক’ল্পনা থেকে ‘জাস্ট গো’ নামে ইউটিউব চ্যানেল ও ফেইসবুক পেইজ খুলে ডকু’মেন্টা’রি নির্মাণ শুরু করেন। শুটিং ও এডি’টিংয়ে সহায়’তার জন্য সহপাঠী সাহেদুল ইস’লাম সিফাত ও তাহ’সিন রিফাত নূরকে স’ঙ্গে নিয়ে চারজনে’র দল হয়ে জু’লাইয়ের শুরুর দিকে কক্স’বাজারে গিয়েছি’লেন শিপ্রারা।

সেখানে কাজ চলার মধ্যে গত ৩১ জুলাই টেকনাফের একটি ত’ল্লা’শি চৌকিতে পু’লিশের গু’লিতে সিনহা রাশেদ খান নি’হত হওয়ার পর শিপ্রা ও সিফা’তকেও গ্রে’প্তার করা হয়েছিল। পরে এই মা’ম’লায় টেকনা’ফ থা’নার ও’সিসহ পু’লিশে’র সাত সদস্য গ্রে’প্তার হওয়ার পর জা’মিনে ছাড়া পান তা’রা।

শিপ্রা
এরপর সিনহা হ’ত্যা’কা’ণ্ড নিয়ে দেশজুড়ে আলো’চনার মধ্যে তাদে’র তৈরি করা একটি ডকু’মেন্টারি ফেই’সবুকে ভাই’রাল হয়। ওই ভিডিও তাদের প্রকা’শিত না হওয়ায় নিজে’দের ‘স্বপ্ন’কে’ টিকিয়ে রাখতে ‘জাস্ট গো’-তে ডকুমেন্টা’রি প্রকা’শের ঘোষণা দিয়ে একটি ভিডিও আপ’লোড করে’ন শিপ্রা।

এরপরই শুরু হয় তাকে নিয়ে নানা ধ’রনের ‘নোং’রা’ প্রচারণা। ‘জাস্ট গো’ টিমের চার সদস্য সিনহা মো. রাশেদ খান, শিপ্রা দেবনাথ, সাহেদুল ই’স’লাম সিফাত ও তাহসিন রিফাত নূর। ‘জাস্ট গো’ টিমের চার সদস্য সিনহা মো. রাশেদ খান, শিপ্রা দেব’নাথ, সাহেদুল ইস’লাম সিফা”ত ও তাহসিন রি’ফাত নূর।

এই ঘ’টনা তা’দের ও’পর ভ’য়া’নক মা’নসিক চা’প তৈরি করেছে জানিয়ে শিপ্রার ছোট ভাই শুভজিৎ কুমা’র দেব’নাথ বলেন, “শিপ্রার ব্য’ক্তিগত বিভি’ন্ন ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগা’যোগ মাধ্য’মে প্রকাশ পাচ্ছে। এতে শিপ্রা ও আমা’দের পরি’বারের সবাই মা’নসি’কভাবে আরও ভে’ঙে পড়েছি।”

বোন (শিপ্রা) আপাত’ত র‌্যা’­বের নিরা’পত্তায় থাকলেও তাদের মধ্যে এক ধর’নের ভ’য় কাজ করছে জা’নিয়ে তিনি বলেন, “আমাদের জন্য অ’দৃশ্য সামা’জিক বা’ধা সৃ’ষ্টি’ হয়েছে, নি’রাপত্তা’হীনতা বেড়ে গেছে।

“আমা’র বোন একজন প্রা’প্তব’য়স্ক না’রী, তার পার্সোনাল জী’বন নিয়ে এভাবে হে’ন’স্তা করা কি ঠিক হয়েছে বা হচ্ছে? যারা করছে’ন এটা অ’বশ্যই নোং’রা কাজ করছেন। মানুষকে শ্র’দ্ধা করা উচিত, বিশেষ করে না’রীকে।”

শুভজিৎ বলেন, “ছবিগু’লো তো আমা’র বোন তার ফেইসবু’কে দেয়নি। তাহলে ব্যক্তিগত ছবিগুলো এনে এখানে তার চরিত্রহনন করা হচ্ছে কেন, কী’ তাদের উদ্দেশ্য? ওটা তো তার নি’তা’ন্তই ব্যক্তিগত ছবি ছিল।”

এসব ছবি যারা সামা’জিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছ’ড়িয়েছেন তাদের বি’রু’দ্ধে আ’ইন’গত ব্যবস্থা নেবেন কি না জা’নতে চাইলে তিনি বলেন, “ভাই, বর্তমান যে অবস্থায় আছে আমা’র বোন সে অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটুক। তারপ’র সবাই মিলে পা’রিবারিক’ভাবে আম’রা সিদ্ধা’ন্ত নেব আ’ইনগত কী’ ব্যবস্থা নেওয়া যায়।”

এভাবে কারও ব্য’ক্তিগত ছবি সামাজিক যোগাযো’গ মাধ্যমে না ছড়াতে সবার প্রতি অনু’রোধ জানান তিনি। শুভজিৎ বলেন, “শিপ্রা এর মধ্যে জাস্ট গো-তে একটি ভিডিও আপলোড করে’ছিল। কারণ সে মনে করে’ছিল, জাস্ট গো নামে আরও অনে’ক অ্যা’কাউন্ট খুলে প্রচুর সা’বস্ক্রাইব করছিল এবং তখন শিপ্রা মনে করে ছিল, এভাবে তো তা’দের আসল ‘জাস্ট গো’র মৌলিকত্ব হারি’য়ে যাবে। তাই ভি’ডিওটি আপ’লোড করেছিল।

“কিন্তু সেই ভিডিও মানুষ ভালো’ভাবে নেয়নি। তাই বোন ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ভিডিওটি সরিয়ে দিয়েছিল।” এখন কেমন আছেন জানতে চাইলে শিপ্রা বলেন, “এই বি’ষয়’গুলো নিয়ে আমি মা’নসিকভাবে কী’ভাবে রয়েছি, তা বলার অ’পেক্ষা রাখে না। আমি সকল কথা, সকল বি’ষয় এবং সব কিছু নিয়ে খুব শিগগি’রই কথা বলব।

“তবে এই মুহূর্তে’ আমি আর কোনো কথা বলতে পারছি না।” এ বি’ষয়ে জানতে চাইলে সিনহা হ’ত্যা মা’মলা ত’দন্তের দায়িত্বে থাকা র‌্যা’­’বের আ’ইন ও গণমাধ্যম শাখার প’রিচালক আশিক বিল্লাহ বলেন, “শিপ্রার কিছু ব্যক্তিগত ছবি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসেছে। এসব ছবি ত’দন্ত কর্মক’র্তার নজরে এসেছে। “ত’দন্ত কর্মক’র্তা হ’ত্যা মা’ম’লা সংক্রান্ত যা কিছু পাচ্ছেন ত’থ্য-উপাত্ত সব সংগ্রহ করে উনার তদ’ন্ত পরিচালনা করছেন।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here