স্ত্রীর মাথা নিয়ে থানায় যুবক

0
72

ভারতের বিহারের বক্সারে স্ত্রীর কা’টা মাথা নিয়ে থানায় আত্মসমর্পণ করেছেন এক ব্যক্তি। দীর্ঘদিন ধরেই তাদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না।

পু’লিশ জানিয়েছে, বক্সারের ব্রহ্মপুর থানা এলাকার ব্রহ্মপুর শিবমন্দিরের কাছে শুক্রবার এই ঘ’টনা ঘটে। ওই যুবকের নাম আলগু যাদব। ৪৮ বছরের আলগুর স্ত্রীর নাম চাঁদনি দেবী। এদিন সকালে চাঁদনি দেবী যেখানে কাজ করেন সেখানে পৌঁছায় আলগু। তারপর হাতের ধারাল অ’স্ত্র দিয়ে প্রকাশ্যে রাস্তায় গ’লা কে’টে তাকে খু’ন করেন।

পু’লিশ সূত্রে খবর, আলগু যখন চাঁদনিকে আ’ক্রমণ করেন তখন সেখানে উপস্থিত জনতা তাকে আ’টকানোর জন্য পাথর ছুড়তে থাকেন। কিন্তু চাঁদনিকে কো’পানো থামাননি আলগু। ঘ’টনাস্থলেই তার মৃ’ত্যু হয়। তারপরে স্ত্রীর কা’টা মুণ্ডু নিয়ে সোজা থানায় চলে যান আলগু। সেখানে গিয়ে নিজের অ’পরাধের কথা স্বীকার করেন তিনি। তাকে গ্রে’প্তার করেছে পু’লিশ।

জানা গেছে, ২০১৩ সালে বিয়ে হয়েছিল আলগু ও চাঁদনির। ঝাড়খণ্ডের পাকুর জে’লায় বাড়ি চাঁদনির। তাদের সংসারে একটি মে’য়েও আছে। বিয়ের কয়েক বছর পর থেকে সংসারে অশান্তি বাড়তে থাকে। একটা সময়ের পর তারা সি’দ্ধান্ত নেন আলাদা থাকবেন। সেইমতো আলাদাই থাকছিলেন তারা। আ’দালতে বিবাহ বিচ্ছেদের মা’মলা চলছিল।

পু’লিশ আরো জানিয়েছে, একটি শপিং মলে কাজ করতেন চাঁদনি। আলগু বারবার তাকে চা’প দিচ্ছিল যাতে তিনি আ’দালত থেকে বিবাহ বিচ্ছেদের মা’মলা তুলে নেন। সেইস’ঙ্গে তাকে ফিরে আসারও প্রস্তাব দেন তিনি। কিন্তু তাতে রাজি হননি চাঁদনি। উল্টো আলগুর কাছে খোরপোষের দাবি জানান চাঁদনি। তারপরেই নাকি চাঁদনিকে মা’রার পরিকল্পনা করেন আলগু।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here