এই পাঁচ ধরনের পুরু’ষকে কখনো বিয়ে করা উচিত নয়। মে’য়েরা অবশ্যই জেনে রাখু’ন…

0
65

বিয়ে হল দুটি মনের মি’লন। দাম্পত্য জীবনে স্বা’মী স্ত্রী দুজনের সহযোগিতা ছাড়া সংসার কখনো সু’খের হয়না। বিয়ের আগে থেকে না’রী পুরু’ষ উভ’য়েরই নিজেদের জীবন স’ঙ্গী নিয়ে একটা ই’চ্ছা থাকে। ছেলেরাও চায় তাদের স্ত্রী তার মনের মত হোক, আর মে’য়েদেরও তাদের স’ঙ্গীকে নিয়ে একটা আশা প্রত্যাশা থাকে। আজকের এই প্রতিবেদন বিশেষ করে মে’য়েদের জন্য।

কোন ধরনের ছেলে ভালো হবে, কে মন্দ হবে তা বুঝে ওঠা খুব কঠিন। বিবাহের ক্ষেত্রে ভু’ল পাত্র নির্বাচন করলে সারাজীবন সংসারে অশান্তি লেগেই থাকবে। ঝামেলা কখনো পিছু ছাড়বে না। জীবন হয়ে উঠবে দূর্বি’ষহ। আসুন তাহলে জেনে নিন স্বা’মী হিসাবে কোন পাঁচ ধরনের পুরু’ষকে নির্বাচন করা উচিত নয়।

১। না’রীরা ভালো ছেলেদের থেকে খা’রাপ ছেলেদের প্রতি বেশি আকৃ’ষ্ট হয়। এর কারন হল তারা অতিরিক্ত মিথ্যায় ভরিয়ে দিতে পারে। তাদের কথা বলার জাদু, আবার অনেকের অতিরিক্ত যত্ন নেওয়ার জাদুতে মে’য়েদের মন খুব তাড়াতাড়ি গলে যায়। কিন্তু একটা ভদ্র ভালো ছেলের একটা মে’য়ের মন জয় করতে অনেক সময় লেগে যায়।

তাই খুব সহজেই খা’রাপ ছেলেদের জালে মে’য়েরা ফেসে যায়। অনেকেই আশা করে তারা পড়ে ভালো হয়ে যাবে। কিন্তু স্বভাব কারোর কখনো বদলায়না। এধরনের ছেলেদের বিয়ে করে মে’য়েরা ক’ষ্ট ছাড়া কিছুই পায়না। তাই এদের থেকে দূরে থাকাই ভালো।

২। এমন অনেক পুরু’ষ আছে যারা সবাইকে নিজের নিয়ন্ত্রনে রাখতে বেশি পছন্দ করে। তাদের সাথে সারাজীবন কা’টানো অত সহজ নয়। যে মে’য়ে একেবারে মাটির মানুষ সেই মে’য়েই একমাত্র তাদের সাথে মানিয়ে নিতে পারবে। এই ধরনের পুরু’ষের থেকে দূরত্ব বজায় রেখে চলাই ভালো।

৩। অতিরিক্ত মা ঘেঁষা ছেলেরা স্বা’মী হিসাবে ভালো হয়না। তারা মায়ের প্রতি শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা দেখাতে গিয়ে স্ত্রী’কে ভালোবাসাতে ভু’লে যায়। স্ত্রীর প্রতি কোন কর্তব্য পালন করেনা। স্ত্রীর প্রতি মা কোন অন্যায় করলে মাথা নিচু করে মেনে নেয়।

৪। যে পুরু’ষ মনে করে যে সে সব কিছু জানে, তার থেকে দূরত্ব বজায় রাখাই ভালো। সে আপনার কোন মতকে কখনই গুরুত্ব দেবেনা। এরূপ পুরু’ষেরা নিজেদের জ্ঞানী বলে মনে করে। আপনার কথা ঠিক বা যুক্তিযোগ্য হলেও সে নিজের জ্ঞ্যান দিয়ে তা চা’পা দিয়ে দেবে।

৫। অতিরিক্ত আত্মকেন্দ্রিক ব্যাক্তিকে বিয়ে করা কখনোই উচিত নয়। তাহলে বৈবাহিক জীবন কখনো সু’খের হয়না। কারন এরা সর্বক্ষন নিজেকে নিয়ে ব্যাস্ত থাকে। নিজেকে ছাড়া অন্য কিছু বোঝেনা। এদের কাছে তার স্ত্রীর কোন মূ’ল্যই থাকেনা।

সুতরাং সতর্ক থাকুন, বিয়ের আগে ভেবে নিন, বুঝে নিন তারপর বিয়ে করুন। এই ৫ ধরণের পুরু’ষকে একটু এড়িয়ে চলুন তাহলেই আপনার সাংসারিক জীবন হবে সু’খের। তাতে আর কোন অশান্তিরও সৃষ্টি হবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here