ফা’হিমকে টুকরো টুকরো করা সেই ইলেকট্রিক করাত নিয়ে ভ’য়ংকর ত’থ্য দিল আ’টককৃত হাসপিল

0
533

পাঠাওয়ের সহপ্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহ খু’ন হওয়ার ঘ’টনায় গ্রে’ফতার টেরেস ডেভোন হাসপিলকে ম্যানহাটনের ফেডারেল আ’দালতে হাজির করা হয়েছে। ক’রোনাভা’ইরাসেের জেরে নিউইয়র্কের আ’দালতে ভার্চ্যুয়াল শুনানি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

ম্যানহাটনের অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিসট্রিক্ট অ্যাটর্নি লিন্ডা ফোর্ড কনফারেন্সে আদলতকে বলেন, ফাহিমকে হ’ত্যা করার আগে হোমডিপো নামের দোকান থেকে ইলেকট্রিক করাত ও ধোয়ামোছার সরঞ্জামাদি কেনেন হাসপিল। যা ফাহিম সালেহর অ্যাপার্টমেন্টে পাওয়া গেছে। এতে বোঝা যায়, ফাহিমকে হ’ত্যার জন্যই ইলেকট্রিক করাত কেনেন হাসপিল। সিসি ক্যামেরায় ধারণ করা ভিডিওতেও দেখা যাওয়া স’ন্দে’হভাজন খু’নির পোশাক টেরেস হাসপিলের ব্রুকলিনের বাড়িতে পাওয়া গেছে।

আ’দালতে উপস্থাপন করা হয়, সিসিটিভি ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ফাহিম গত সোমবার দুপুর ১টা ৪০ মিনিটের সময় সর্বশেষ তার অ্যাপার্টমেন্টে প্রবেশ করেন। এ সময় সপ্তম তলায় যাওয়ার জন্য তিনি যখন নিচতলা থেকে লিফটে চড়েন তখন আরো এক ব্যক্তি লিফটে উঠেন। ফাহিম স’ন্দে’হের দৃষ্টিতে অচেনা ওই লোকটির দিকে তাকিয়েছেন বলেও ভিডিওতে দেখা গেছে।

এরপর সে ফাহিমের স’ঙ্গেই সপ্তম তলায় নেমে পড়েন। ফাহিম তার অ্যাপার্টমেন্টের দরজা খোলা মাত্রই লোকটি তার ও’পর আ’ক্রমণ চা’লায় এবং ধাক্কা দিয়ে তাকে রুমের ভে’তরে ঢুকিয়ে ফে’লে।

লিন্ডা ফোর্ড বলেন, এ মা’মলার ক্ষেত্রে বিস্তর প্রমাণ রয়েছে। অ’পরাধ সংঘটনের আগে ও পরে তাকে নজরদারি ক্যামেরায় দেখা গেছে। ভিডিও টেপ দেখে অন্তত দুইজন ব্যক্তি তাকে শনাক্ত করতে পেরেছে।

এই হ’ত্যাকাণ্ডের মোটিভ সম্প’র্কে প্রসিকিউশন এখনো চূড়ান্ত নন। অর্থের লেনদেন এবং ব্যক্তিগত বি’ষয়ই ফাহিম হ’ত্যার কারণ বলেই ধারণ করা হচ্ছে। প্রসিকিউশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে , হ্যাসপিল কোনো অর্থ ফেরত দিয়েছেন কি না, সেটি তারা খতিয়ে দেখছেন।

নিউ ইয়র্ক টাইমস-এর এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ঘ’টনা সম্প’র্কে অবগত ৩ জন কর্মকর্তা তাদের জানিয়েছেন, ফাহিমের কাছ থেকে আগে ৯০ হাজার ডলার চু’রি করেছিল হাসপিল। ফাহিম তখন তাকে নিজের প্রতিষ্ঠান থেকে বরখাস্ত করেছিলেন। তবে তার বি’রুদ্ধে পু’লিশের কাছে কোনো অভিযোগ করেননি। বরং হাসপিল যেন কিস্তিতে টাকা’টা ফেরত দিতে পারে, তার পথ বাতলে দিতে চেয়েছিলেন তিনি। লিন্ডা ফোর্ড এসব সূত্রও আ’দালতের সামনে উপস্থাপন করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here