স’রকারি উদ্যোগে বিনা জামানতে ৫ লক্ষ্য টাকা ঋ’ণ পেতে যা যা করতে হবে

0
346

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম বার্ষিকী উপলক্ষে (মুজিববর্ষ) বেকার যুবকদের জন্য কর্মসংস্থান ব্যাংকের সাথে চুক্তি করেছে ‘বঙ্গবন্ধু যুব ঋ’ণ’ নামে একটি প্রকল্প চালুর ব্যবস্থা করেছে স’রকার।

কেউ যাতে বেকার না থাকে সে উপলক্ষে যুবকদের ২০ হাজার থেকে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনা জামানতে ঋ’ণ সুবিধা দেওয়া হবে। ক’রোনাকাল ও পরবর্তী বাংলাদেশ নিয়ে আওয়ামী লীগের বিশেষ ওয়েবিনার ‘বিয়ন্ড দ্য প্যানডেমিক’-এর অষ্টম পর্ব অনুষ্ঠানে মঙ্গলবার (৩০ জুন) যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ হাসান রাসেল এ কথা জানান।

আলোচনায় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ হাসান রাসেল বলেন, ক’রোনার প্রভাবে সারা বিশ্বের মতো আমাদের যুব সম্প্রদায়, যাঁরা বিভিন্ন কর্মস্থানে আছেন, তাঁরা অনেকেই আংশিক বা পুরোপুরি বেকার হয়ে যাবেন।

এই হঠাৎ বেকার হয়ে পড়া জনগোষ্ঠী, যাঁরা গ্রামে চলে গেছেন বা যাবেন ভাবছেন, তাঁদের সেখানেই আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য এবং তাঁদের দক্ষ’তা বৃ’দ্ধির জন্য বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ দেওয়া এবং তাঁদের জন্য লোনের ব্যবস্থা করে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছি। আগে লোনের ক্ষেত্রে যে ইন্টারেস্ট দিতে হতো, আমরা সেটা অর্ধেকে নামিয়ে নিয়ে এসেছি।

এ মুজিববর্ষে কেউ যাতে বেকার না থাকে, সে উপলক্ষে কর্মসংস্থান ব্যাংকের স’ঙ্গে চুক্তি করে ‘বঙ্গবন্ধু যুব ঋ’ণ’ নামে একটি প্রকল্প চালুর ব্যবস্থা করেছি, যেখানে সর্বনিম্ন ২০ হাজার থেকে সর্বাধিক পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনা জামানতে ঋ’ণ সুবিধা দেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমরা সারা দেশে বেকার হয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। আর সে হিসেবে তাদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করব। আমাদের টার্গেট রয়েছে, আগামী তিন বছরের মধ্যে ১২ লাখ দক্ষ যুবকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিশেষ ওয়েবিনারের অষ্টম পর্বে বক্তারা তরুণদের ভবি’ষ্যৎ বাংলাদেশ নির্মাণের মূ’ল যোদ্ধা হিসেবে অভিমত ব্যক্ত করেছেন। দলের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে প্রচারিত এ লাইভ অনুষ্ঠানে তাঁরা বলেন, ‘আমাদের ভবি’ষ্যৎ স্বপ্ন অর্জনে তরুণরাই হচ্ছে মূ’ল যোদ্ধা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার শাহ আলী ফরহাদের সঞ্চালনায় ওই ওয়েবিনারে আলোচক হিসেবে ছিলেন, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল,

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপা’চার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর এবং গুরুকুল অনলাইন লার্নিং প্ল্যাটফর্ম-এর প্রতিষ্ঠাতা সুফি ফারুক ইবনে আবুবকর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here