আবারো এক হচ্ছেন তাহসান-মিথিলা!

0
512

বিনোদন ডেস্ক: সংগীতশিল্পী তাহসান খান ও মডেল-অভিনেত্রী মিথিলা ছিলেন শোবিজ অ’ঙ্গনে সবচেয়ে আলোচিত জুটি। তাদের দাম্পত্য জীবন ছিলো সকলের নিকট আলোচনার অন্যতম বি’ষয়। কিন্তু,

সেই আলোচনা হুট করে থেমে যায় ২০১৭ সালের ২০শে জুলাই, আকস্মিকভাবেই কোনো কারণ না জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিবাহবিচ্ছেদের ঘোষণা দেন এই তাহসান ও মিথিলা।

তাহসান আর মিথিলার বিয়ে হয়েছিলো ২০০৬ সালের ৬ আগস্ট। তবে, সংসারে একসময় অশান্তি দেখা দিলে ২০১৫ সালের দিকে আলাদা হয়ে থাকতে শুরু করেন এই তারকা দম্পতি। অশান্তি যখন ধীরে ধীরে গাঢ় হয়, একসময় তারা বিচ্ছেদের পথ বেছে নেন।

তারকা এই দম্পতির বিচ্ছেদে ভক্তরা বিস্মিত হয়েছিলেন; কিন্তু এই বিচ্ছেদ কেন হয়েছিলো তা জানতে পারেননি ভক্তরা। কেননা গণমাধ্যমকে বরাবরই এড়িয়ে গেছেন তারা।

জানা গেছে, তাদের একমাত্র কন্যা আইরা তাহরিম খান, মিথিলা ও তাহসান দুইজনের কাছেই থাকেন। তবে বিচ্ছেদের দুই বছর পর এই প্রথম এই জুটি দেশের বাইরে যুক্তরাষ্ট্রে একসাথে ঘুরছেন। এই জন্য অবশ্য সাংবাদিকদের অনুসন্ধান করতে হয়নি; তাদের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টই বলে দিচ্ছে তারা কী করছেন।

মিথিলা একটি ছবি আপলোড করেছে মে’য়ে আইরা তাহরিম খানকে নিয়ে বসে আছেন সেন্ট্রাল পার্কের সামনে। এই ছবি কে তুলেছে; এই প্রশ্ন তৈরি হবে যে কারো মনে। আবার সেন্ট্রাল পার্কে আইরা দৌঁড়ে যাচ্ছে সেই ছবিও তাহসানের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে আপ করা হয়েছে। তার মানে মে’য়েকে নিয়ে মিথিলা ও তাহসান দুইজনেই সেন্ট্রাল পার্কে ছিলেন।

এম্পায়ার স্টেট বিল্ডিং এর সামনে মে’য়ে আইরা তাহরিমকে কাঁধে করে নিয়ে যাচ্ছে তাহসান খান। সেই একই জামা আর একই ব্যাগ পিঠে আইরার। এই ছবি পেছন থেকে কে তুলেছে; একই শহরে ঘুরছে আইরা; একবার তার বাবার স’ঙ্গে একইবার তার মায়ের স’ঙ্গে। আর পেছন থেকে কেউ একজন এই সব ছবি তুলে দিচ্ছে। মজার ঘ’টনা হলো আইরার সেই ছবি আবার মিথিলার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টেও আছে।

অর্থাৎ এম্পায়ার স্টেট বিল্ডিং সেন্ট্রাল পার্কে তাহসান আর মিথিলা একসাথে ছিলো এই কথা নিশ্চিত। নিউইয়র্কে যে দুইজন একইসাথে ঘুরছে এই নিয়ে আর দ্বিমতের সুযোগ নেই।

এদিকে শোনা যাচ্ছে, সাবেক এই তারকা দম্পতির পুরোনো প্রেম জেগে উঠেছে। এক হতে চাচ্ছেন তাহসান আর মিথিলা। অনেকেই ধারণা করছেন- মে’য়ের মুখের দিকে তাকিয়ে এক হবেন শোবিজ অ’ঙ্গনে সবচেয়ে আলোচিত এই জুটির।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here