সাড়ে ৫শ বছর আগের কুরআনের পাণ্ডুলিপি বিক্রি হলো ৭৩ কোটি টাকায় –

0
255

মিং রাজবংশের সময়ে সোনার প্রলেপে লেখা কুরআনের মূ’ল্যবান পাণ্ডুলিপিটি ৭০ লাখ পাউন্ডে বিক্রি হয়েছে। যা টাকার অঙ্কে প্রায় ৭৩ কোটি ১৬ লাখ ৪০ হাজার।তেহরান টাইমস’র প্রতিবেদন অনুসারে, বিশেষ ধরনের চীনা কাগজে লেখা সাড়ে ৫শ বছরের পুরনো দৃষ্টিনন্দন

‘তিমুরিদ কুরআন’-এর পাণ্ডুলিপিটি দেখতে যেমন অনিন্দ্য সুন্দর তেমনি আ’কর্ষণীয়। সুন্দর ও নিখুঁতভাবে লেখা কুরআনের এ পাণ্ডুলিপি দেখলেই যেন এক ধরনের আবেগ

এবং হৃদয়ে অন্য রকম এক শিহরণ জা’গ্রত হয়!ভারী রঙিন চীনা কাগজে নাসখে লেখা, এই দুর্দান্ত পাণ্ডুলিপিটি তিমুরিদ রাজবংশের অন্তর্ভুক্ত, যিনি সুন্নি মু’সলিম বংশ বা তুরকো-মঙ্গোল বংশোদ্ভূত ছিলেন যোদ্ধা তিমুর (যা তামেরলেন নামেও পরিচিত) থেকে আগত।কুরআনে ব্যবহৃত রঙগুলোর মধ্যে রয়েছে গাঢ় নীল, ফিরোজা, গোলাপী, বেগুনি, কমলা,

সবুজ এবং চা’পা সাদা। পাঠ্য, ক্যাচওয়ার্ড এবং প্রান্তিক শব্দগুলো সোনার, নীল এবং সাদা রঙে সাজানো।বহু শতাব্দী ধরে সংরক্ষিত কুরআনের এ পাণ্ডুলিপিটি এখনো দেখতে স্বচ্ছ ও নিখুঁত। এটির রঙ ও উজ্জ্বলতা এখন অক্ষুন্ন রয়েছে। অনন্য মাত্রায় লেখা আশ্চর্যজনক ক্যালিগ্রাফিতে সাজানো কুরআনের পুরো পাণ্ডুলিপি। বিশেষ ধরনের চীনা কাগজে লিখিত কুরআনের এই পাণ্ডুলিপির পৃষ্ঠা এবং প্রচ্ছদে স্বর্ণের কাজ করা রয়েছে।

নিলামটি ২৫ শে জুন ক্রিশ্চিয়াস আর্ট অফ ইসলামিক অ্যান্ড ইন্ডিয়ান ওয়ার্ল্ডসে হয়েছিল। এতে ৩৫ ইরানি কার্পেট, শতরঞ্জিসহ বিভিন্ন শিল্পকর্মও ছিল। ২৬ জুন শুক্রবার ‘তিমুরিদ কুরআন’-এর এ পাণ্ডুলিপি বিক্রির জন্য উপস্থাপন করা হয়েছিল। দেখতে চমৎকার লোভনীয় দৃষ্টিনন্দন এ পাণ্ডুলিপিটি সেখানে নিলামে ৭০ লাখ পাউন্ডে বিক্রি হয়েছে।

নিলাম বিশেষজ্ঞরা আগেই ধারণা করেছিলেন যে, এ পাণ্ডুলিপিটি ৮০০ ডলার থেকে বিট শুরু হবে। যা ১.২ মিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যেতে পারে। অবশেষে তা ৭০ লাখ পাউন্ডে (প্রায় ৭.৩ মিলিয়ন) বিক্রি হলো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here