গ’র্ভবতী অবস্থায় স্ত্রী স’হবা’স করতে হয় কিভাবে?

0
666

ওয়েব ডেস্ক : যদি আপনার স্ত্রীর গ’র্ভবতী থাকার সময় স্বাভাবিক ভাবে চলমান থাকে তাহলে আপনি স’ন্তান গ’র্ভে থাকা অবস্থায়ও তার সাথে স’হবা’স করতে পারেন।

তবে এ ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম কানুন অনুসরণ করলে কোনো প্রকার বিপত্তির সম্ভাবনা থাকে না। আবার কিছু কারন আছে যার ফলে গ’র্ভবতী সময়ের নির্দিষ্ট কিছু সময়ব্যপ্তিতে যৌ’ন মি’লন করা থেকে বিরত থাকা জরুরি।

যে কারনে গ’র্ভকালীন সময় যৌ’নমি’লন থেকে বিরত থাকা উচিত:
কোন কারনে যৌ’নাঙ্গ থেকে র’ক্তক্ষরন হলে : গ’র্ভকালীন সময়ে অল্প কিংবা বেশি র’ক্তক্ষরন পরিলক্ষিত হলে শাররীক মি’লন থেকে বিরত থাকতে হবে।

প্রাক প্রসব বেদনা:- বী’র্যের সংশ্চর্ষে প্রোস্টাগ্লেনডিনস্ সংকুচিত হবার সম্ভাবনা থাকে যা প্রাক-প্রসব-বেদনাকে ঝামেলাপূর্ণ করে তুলতে পারে।

জরায়ুর গলদেশে সমস্যা থাকলে: যদি আপনার জরায়ুর মুখ অকালে খুলতে শুরু করে তাহলে শাররীক মি’লন করলে রো’গ সংক্রমনের সমুহ সম্ভাবনা থাকে।

গ’র্ভবতী ম’হিলাদের প্রয়োজনীয় কিছু স্বাস্থ্য টিপস

গ’র্ভের ফুল/অমরা সমস্যায় থাকলে: যদি গ’র্ভের ফুল/অমরা জরায়ুমুখ আংশিক কিংবা সম্পুর্নরূপে ঢেকে ফে’লে তাহলে শাররীক মি’লনের ফলে র’ক্তপাত এবং প্রাক প্রসব বেদনা শুরু হয়ে যেতে পারে।
যৌ’ন-সংক্রামন ব্যাধি:- আপনার কিংবা আপনার স্বা’মীর কোন প্রকার যৌ’ন-সংক্রামন ব্যাধি থাকলে গ’র্ভকালীন শাররীক মি’লন থেকে বিরত থাকতে হবে।

গ’র্ভবতী মায়ের কোমর ব্য’থার কারণ ও প্রতিকার

যদি আপনার ডাক্তার আপানাকে গ’র্ভকালীন শাররীক মি’লন থেকে বিরত থাকতে বলে তাহলে খুজে বের করুন ডাক্তার কি বলতে চেয়েছে?
ডাক্তার কি শাররীক মি’লন থেকে বিরত থাকতে বলেছে নাকি যৌ’ন উ’ত্তেজনা/তৃ’প্তি থেকে বিরত থাকতে বলেছে?

আর যদি ডাক্তার বারন করে তাহলে অবশ্যই জেনে নিবেন – কত সময়ের জন্য বারন করেছেন? উদাহরন স্বরূপঃ অনেক না’রীর গ’র্ভধারনের প্রাথমিক ধাপে (প্রথম তিনমাস সময়ে) যদি অল্প পরিমান র’ক্তক্ষরন হয় তাহলে ডাক্তার বলেন শেষ বার র’ক্তক্ষরনের পর কমপক্ষে এক সপ্তাহ সময়কাল মি’লন/অন্যকোন ভাবে যৌ’ন তৃ’প্তি থেকে বিরত থাকেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here