প্র’তিবাদের মাঝেই নেট দুনিয়ায় ‘জর্জ ফ্লয়েড চ্যালেঞ্জ’, মরণ ফাঁ’দে শিক্ষার্থীরা

0
105

মরণ ফাঁ’দে স্কুল পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীরা। তরুণ-তরুণীদের মধ্যে দেদারসে চলছে ‘জর্জ ফ্লয়েড চ্যালেঞ্জ’। শুধু তাই নয়, বন্ধুদের সঙ্গে যেমন তারা এই খেলায় মেতে উঠেছে। তেমনই এই চ্যালেঞ্জ নিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় আহ্বানও জানাচ্ছে বন্ধুদের। এদিকে কৃষ্ণাঙ্গ ‘জর্জ ফ্লয়েড হ’ত্যার প্র’তিবাদে মা’র্কিন যুক্তরাষ্ট্র যখন জ্ব’লছে, তখন সোশ্যাল মিডিয়ায় মা’র্কিন যুবসম্প্রদা’য়ের এই মরণ চ্যালেঞ্জ দেখে রীতিমতো হতবাক নেটিজেনরা। এটাকে অনেকেই বলছেন অমানবিক!

তবে চিন্তার বি’ষয়, দেশের যুবসম্প্রদায় যদি শ্রেণিবৈষম্য কিংবা বর্ণবৈষম্যের মতো গু’রুতর বি’ষয়গুলো নিয়ে মজায় মেতে ওঠে, তাহলে ভবি’ষ্যৎ প্রজন্মের উপর এর বড়সড় নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। এমন উ’দ্বেগও প্রকাশ করতে দেখা গেছে নেটিজেনদের একাংশকে।

তাই ‘জর্জ ফ্লয়েড চ্যালেঞ্জ’ নিয়ে রীতিমতো উ’দ্বি’গ্ন যুক্তরাষ্ট্রের বাবা-মায়েরা। তাদের কথায়, জর্জ ফ্লয়েড হ’ত্যার ঘটনা কতটা ঘৃণ্যভাবে প্রভাব বিস্তার করেছে, তা সোশ্যাল মিডিয়ায় এই চ্যালেঞ্জ দেখলেই বোঝা যায়।

কী এই ‘জর্জ ফ্লয়েড চ্যালেঞ্জ’?

শিক্ষার্থীদের দেখা গেছে হাঁটু মুড়ে অপর বন্ধুর ও’পর বসতে। শুধু তাই নয়, ওই মুহূর্ত ক্যামেরাব’ন্দী করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে বন্ধুদের চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছে তারা। হ্যাশট্যাগে লেখা ‘জর্জ ফ্লয়েড চ্যালেঞ্জ’। ইতিমধ্যেই হ্যাশট্যাগ নি’ষিদ্ধ করেছে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম। মা’র্কিন মুলুকের বেথেল হাইস্কুলের এক রেসলার কোচই এই চ্যালেঞ্জ শুরু করেছিলেন প্রথমে। তাকে পরবর্তীতে স্কুল থেকে অপসারিত করে দেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here