| news
Home Blog

৩২ বছরের ক্যারিয়ারে প্রথম ঠোঁ’টে চুমু, ব্যাখ্যা দিলেন সালমান

0

বলিউড ভাইজান সালমান খানকে ৩২ বছরের ক্যারিয়ারে প্রথমবার কোনও নায়িকার ঠোঁ’টে ঠোঁট রেখে চুমু খেতে দেখলেন তার ভক্তরা। ‘রাধে : দ্য মোস্ট ওয়ান্টেড’ ছবির ট্রেলার দেখে এমনটাই দেখা গেলো।

যদিও বলিউড ছবিতে অন্তরঙ্গ মূহুর্ত কিংবা অন-স্ক্রিন কিস, এটা নতুন কিছু নয়। শাহরুখ, আমিরকেও নায়িকাদের ঠোঁ’টে ঠোঁট মেলাতে দেখা গেলেও সালমানের বেলায় এমনটি নয়।

কিন্তু গত তিন দশকের ক্যারিয়া যা করেননি, সেটা রাধে ছবিতে ঘটিয়ে বসেছেন সলমন এটা মেনে নিতে একটু খটকা লাগছিল ভক্তদের।

পরে বি’ষয়টি সালমান নিজেই পরিষ্কার করলেন। হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, সালমন খান লিপলক না করবার নিজের কমিটমেন্ট ভাঙেননি। ২৭ বছরের ছোট নায়িকা দিশাকে নয়, বরং সেলোটেপে চুমু খেয়েছেন।

সালমন-দিশার চু’ম্বনের ঝলক ভালোভাবে লক্ষ্য করলে দেখা যাবে দিশার মুখে টেপ সাঁটা রয়েছে। এবং তার উপরই চুমু খাচ্ছেন ভাইজান। সুতরাং ঠোঁ’টে ঠোঁট না রাখবার প্রতিজ্ঞা ভাঙেননি সালমান।

এই ছবি ব্যাপক পরিমাণে টুইটারে শেয়ার করছেন সালমন ভক্তরা। সেই নিয়ে মজাদার স্ট্যাটাস ও কমেন্টেরও ছড়াছড়ি। একজন লেখেন- সালমন বলল, আমি দিশাকে চুমু কিছুতেই খাব না।

অমনি, প্রভু দেবা দিশার ঠোঁ’টে সেলোটেপ মে’রে দিল। অপর একজন লেখেন-ভার্জিনিটি নিয়ে কোনওকম রিস্ক নিতে রাজি নন, সালমন খান। তাই চুমু খাওয়ার প্রশ্নই উঠে না।

কেন অনস্ক্রিনে চুমু খান না সালমন? এই নিয়ে ইন্ডিয়া টুডে-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সালমন জানিয়েছিলেন এই বি’ষয়টির স’ঙ্গে তিনি স্বচ্ছন্দ নন।

সালমান বলেন, ‘আমরা যখন পরিবারের স’ঙ্গে ছবি দেখি, এবং সেখানে কোনও চু’ম্বনের দৃশ্য চলে আসে তখন সকলেই অস্বস্তিতে পরে এদিক ওদিক তাকায়। মেয়নে প্যায়ার কিয়া-তেও অন্তরঙ্গ মুহূর্ত সরাসরি দেখানো হয়নি।

আমি যখন ছবিতে অভিনয় করি, আমি চাই সেটা সপরিবারে দেখা হোক। সবচেয়ে বেশি যেটা ঘটে সেটা আমি আমার শার্ট খুলে ফেলি।

হয়ত সংলাপের মধ্যে কিছু দুষ্টুমি মাখানো জোক থাকে কিন্তু আপনি কখনই আমাকে লাভ মেকিং সিনের অংশ হতে দেখবেন না। ‘

উল্লেখ্য, গত বছর ইদে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল রাধে ছবিটির। ক’রোনার জেরে এক বছর পিছিয়ে আসন্ন ঈদে মুক্তি পাবে ‘রাধে : ইয়োর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’।

ক’রোনার কথা মাথায় রেখে থিয়েটারের পাশাপাশি জি-প্লেক্সে এবং জি ফাইভেও মুক্তি পাবে এই ছবি। পরিচালক প্রভু দেবার এই ছবিতে ভিলেনের ভূমিকায় রয়েছেন রণদীপ হুদা। ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা যাবে জ্যাকি শ্রফকে।

কাঠ দিয়ে ট্রাফিক সার্জেন্টকে বেধর পি’টিয়ে হাসপাতালে পাঠালেন যুবক

0

মোটরসাইকেল চালকের মাথায় হেলমেট ছিল না। তাই তাকে থামিয়েছিলেন ট্রাফিক পু’লিশের সার্জেন্ট। এ নিয়ে বাগবিতণ্ডা। এরই একপর্যায়ে আচমকা হা’মলা সার্জেন্টের ও’পর। এতে তিনি গু’রুতর আ’হত হন। মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে

রাজশাহী মহানগরীর বিলশিমলা ঐতিহ্য চত্বরে এ ঘ’টনা ঘটে। আ’হত ট্রাফিক সার্জেন্টের নাম বিপুল কুমার। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সার্জেন্টের দুই হাতে জ’খম হয়েছে। এছাড়া শ’রীরের বিভিন্ন অংশে

আ’ঘাত পেয়েছেন তিনি। বর্তমানে রামেক হাসপাতালের চার নম্বর ওয়ার্ডে তার চিকিৎসা চলছে। সার্জেন্ট বিপুল কুমারের স’ঙ্গে দায়িত্ব পালন করছিলেন কনস্টেবল ইসমাইল হোসেন।

বি’ষয়টি নিয়ে তিনি কোনো কথা বলতে চাননি।পু’লিশ ঘ’টনাস্থল থেকে জি’জ্ঞাসাবাদের জন্য দুজনকে আ’টক করে থানায় নিয়েছে। ঘ’টনাস্থলের সামনেই এদের একজনের চায়ের দোকান, অন্যজন পাশের একটি ফার্নিচারের দোকানের কর্মচারী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মাথায় হেলমেট ছাড়াই আসছিলেন এক যুবক। ট্রাফিক সার্জেন্ট তাকে থামিয়ে মোটরসাইকেলের কাগজদেখতে চান।

এছাড়া হেলমেট না থাকায় তিনি মা’মলা দিতে শুরু করেন। তখন ওই যুবক মোটরসাইকেল নিয়ে ফুটপাতের ও’পর ওঠেন। এরপর সার্জেন্টের স’ঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়ান।

এরই একপর্যায়ে ফার্নিচারের দোকান থেকে চেলাকাঠ এনে আচমকাই মা’রধর শুরু করেন সার্জেন্টকে। এতে তিনি মাটিতে লু’টিয়ে পড়েন।

পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে ওই যুবক মোটরসাইকেল ফে’লে পা’লিয়ে যান। পরে পু’লিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘ’টনাস্থল পরিদর্শন করেন।

পু’লিশের হাতে আ’টক দুজন জানিয়েছেন, অ’ভিযুক্ত যুবকের নাম বেলাল। তার বাড়ি নগরীর লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া এলাকায়। তিনি সামনের চায়ের দোকানেই আড্ডা দেন।

জানতে চাইলে নগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রা’প্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, সার্জেন্ট বিপুলের দুই হাতে জ’খম হয়েছে।

শ’রীরের অন্যান্য অংশেও আ’ঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ঘ’টনার বি’ষয়ে আপাতত বিস্তারিত কিছু জানি না। একটু সুস্থ হলে সার্জেন্টের স’ঙ্গে কথা বলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রাজশাহী মহানগর পু’লিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, হা’মলাকারী যুবক মোটরসাইকেল ফে’লে পা’লিয়েছেন। তাকে আ’টকের চেষ্টা চলছে। এছাড়া জি’জ্ঞাসাবাদের জন্য দুজনকে আ’টক করা হয়েছে।

আসামীর মুখ ঢেকে দিয়ে না’রীর ছবি প্রকাশ, সোস্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড়

0

বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকের ছেলে ও গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ সোবহান আনভীরের গার্লফ্রেন্ড মুনিয়ার দে’হ গত ২৬ এপ্রিল গুলশান নিজ ফ্লাট থেকে উদ্দার করা হয় এর পর থেকে একের পর এক ত’থ্য আসছে সংবাদে।

কুমিল্লার মোসারাত জাহান (মুনিয়া) ছিলেন কলেজ ছাত্রী গুলশানে ফ্লাট ভাড়া ছিল একলাখ টাকা অনেকে প্রশ্ন তুলেছিলেন একজন কলেজ ছাত্রী কিভাবে এত টাকা ভাড়া দিতেন তারপর পরিষ্কার হয় সোবহান আনভীরের অধীনে সেই বাসায় থাকতেন মুনিরা। মুনিয়া ও সোবহান আনভীরের অডিও বার্তা ও প্রকাশ পায়।

মুনিয়ার বোন বা’দী হয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকের ছেলে ও গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ সোবহান আনভীরকে আসামী করে থানায় মা’মলা করেন গুলশান থানায়। আ’দালত সোবহান আনভীর যেন দেশ ত্যাগ করতে না পারেন সেই অর্ডার দিয়েছেন।

বসুন্ধরা গ্রুপের মালিক পক্ষের বেশ কয়েকটি নিজস্ব মিডিয়া রয়েছে এছাড়া রয়েছে সবদিকে আদিপত্য । ইতিমধ্যে দেশের হাই প্রোফাইল বেশ কয়েকজনের সাথে বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকের ছেলে ও গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ সোবহান আনভীর এর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

গতকাল দেশের অন্যতম প্রভাবশালী একটি মিডিয়ায় বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকের ছেলে ও গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ সোবহান আনভীর এর সাথে থাকা ছবি ব্লুয়ার করে মুনিয়ার ছবি দেখানো হয় এর পর থেকে বি’ষয়টি নিয়ে অনেকেই মন্তব্য করছেন

যেখানে একজন মৃ’ত ম’হিলার ছবি ডেকে দেয়ার কথা ছিল সেখানে তারা পুরু’ষ যার বি’রুদ্ধে মুনিয়ার পরিবার মা’মলা করেছেন একজন আ’সামী তার ছবি ডেকে দেয়া হচ্ছে কেন এরকম প্রশ্ন তুলেছেন যা রিতিমত ভাইরাল। অনেকে সেই টিভি চ্যানেলের মালিক ফরিদুর রেজা সাগর এবং শাইখ সিরাজের নাম ধরে মন্তব্য করছেন।

ফরিদুর রেজা সাগর এবং শাইখ সিরাজের মালিকানাধীন চ্যানেল আই এর “ডাবল স্ট্যান্ডার্ড” নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তফা ফিরোজ।

এক ফেইসবুক স্ট্যাটাস এ তিনি লিখেছেন, “ এই চ্যানেলটি নাকি না’রী অধিকার ও স্বাধীনতার কথা বলে। ছিঃ। থুঃ। আা’সামীর মুখ ঢেকে দিয়ে না’রী ভি’কটিমের ছবি প্রকাশ করে। অর্থ ও ক্ষ’মতার কাছে এরা এতটাই জি’ম্মি?”

লাইভে আত্মহ’ত্যার হু’মকি ধ-র্ষণের শি’কার তরুণীর

0

এবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাই‌ভে এ‌সে বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগ সভাপ‌তি জসিম উদ্দিনের বিরু‌দ্ধে দা’য়েরকৃত ধ-র্ষণ মা’মলার বা’দী আত্মহ’ত্যার হু’মকি দিয়েছেন। আত্মহ’ত্যা করলে অ’ভিযুক্ত জসিমই দায়ী থাকবে বলে লাইভে জানান তিনি।

গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে নিজের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভ করেন। ১২ মিনিট ৩৩ সেকেন্ডের লাইভে তরুণী বলেন, জসিমের সাথে তার প্রেমের সম্প’র্ক দীর্ঘ ৯ বছরের।

ওই সময়ের মধ্যে বিভিন্ন সময় জসিমের সাথে তার শা’রীরিক সম্প’র্ক হয়। প্রথমে জো’র করে এবং পরবর্তীতে সমঝোতার মাধ্যমে। সব কিছুই ছিলো বিয়ের প্রলোভনে।

আশা দিতে দিতে ৯ বছর কে’টে যায়। জসিমের মা এই বিয়েতে রাজী নয় এবং এই মুহূর্তে বিয়ে করলে রাজনৈতিকভাবে ক্ষ’তিগ্রস্থ হবে এ বাহা’না করে।

বিশ্বাস ও ভরসার এক পর্যায়ে প্র’তারণার শি’কার হন। সম্প্রতি জসিমের মা অন্যত্র বিয়ে করার বি’ষয়টি জানার পর গত ১০ এপ্রিল জসিমের বাসায় যান তরুণী।

জসিমের মা তরুনীকে তার ছেলের সাথে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেন। কিন্তু প্রতিশ্রুতি না রেখে গত ১৮ এপ্রিল জসিম অন্যত্র বিয়ে করে।

এ কারণে বরিশাল মেট্রোপলিটন এয়ারপোর্ট থানায় ১৯ এপ্রিল ধ-র্ষণ এবং অবৈধ গ’র্ভপাতের লিখিত অভিযোগ করি। ত’দন্ত শেষে ২১ এপ্রিল তা মা’মলা হিসেবে রুজু হয়।

মা’মলা তুলে নিতে জসিমের পক্ষ থেকে আর্থিক প্রলোভন এবং তাতে রাজী না হওয়ায় হু’মকি-ধামকি দেয় হয় বলে অভিযোগ করেন তরুণী।

গু’রুতর অভিযোগের পরও মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতির পদে বহাল তবিয়তে থাকায় ক্ষো’ভ প্রকাশ করেন ওই তরুণী।

নিরাপত্তাহীনতায় ভোগার কথা বলে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আইনগত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান। ন্যায় বিচার না পেলে আত্মহ’ত্যা করবেন এবং আত্মহ’ত্যা করলে জসিম দায়ী থাকবে বলে ফেসবুক লাইভে জানান তরুণী।

মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতি জসিম উদ্দিনের ব্যবহৃত মোবাইল বন্ধ থাকায় তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি। এয়ারপোর্ট থানার ওসি কমলেশ চন্দ্র হালদার বলেন,

জসিমের বি’রুদ্ধে এক তরুণীর দা’য়ের করা ধ-র্ষণ মা’মলার ত’দন্ত চলছে। ওই তরুণীর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আসামীকে গ্রে’ফতারের চেস্টা চলছে।

অতীত থেকে শিক্ষা নেয়া উচিত: অপু বিশ্বাস

0

ঢালিউড কুইনখ্যাত চিত্রনায়িকা অ’পু বিশ্বা’স। গত সপ্তাহে করোনা প্রতিরোধের টিকা নিয়েছেন। রাজধানীর পু’লিশ হাসপাতা’লে টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছিলেন তিনি।

বিভিন্ন ইস্যুতে নিজের ফেসবুকে সচেনতামূ’লক বার্তা দিয়ে থাকেন অ’পু বিশ্বা’স। তারই ধারাবাহিকতায় এবার ক’রো’না মহামা’রি নিয়ে ভিডিও বার্তা দিয়েছেন অ’পু। নিজের ফেসুবক লাইভে তিনি বলেন, ‘এখন পরিবেশ খুব ভালো না। পরিস্থিতি আমাদের স’ঙ্গে নেই।

বিগত দিন থেকে এ পর্যন্ত আমাদের আ’ক্রা’ন্তের সংখ্যা হলো ৭ লাখ ৩৫ হাজার ৩২২ জন। খুবই দুঃখজনক। অ’তীত থেকে আমাদের সকলের শিক্ষা নেয়া উচিত।

যখন আমাদের এ মহামা’রি শুরু হয়েছে তখন আম’রা যে পরিস্থিতি মো’কাবিলা করিনি আজকে তার থেকে কঠিন পরিস্থিতি মো’কাবিলা করছি।’

অ’পু বিশ্বা’স আরও বলেন, ‘পরিস্থিতি আসলেই আমাদের মাঝে নেই। পাশের দেশ ভা’রতে মহামা’রি যাচ্ছে। ২০২১ সাল নিয়ে আম’রা আ’নন্দিত ছিলাম, কিন্তু তা আর হলো না। আর যেন আমাদের লকডাউনে পড়তে না হয় তার জন্য সকলের স্বাস্থ্যবিধি মনে সুন্দরভাবে পথচলা উচিত। সামনে ঈদ, আ’নন্দ যেন আ’নন্দময় হয়, এটাই চাওয়া।’

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের শুরুতে থেকেই নিজেকে ঘরব’ন্দি করেছেন অ’পু বিশ্বা’স। সময় কা’টাচ্ছেন পুত্র জয়কে নিয়ে। এর আগে, যারা ধূমপান করে তাদের ধূমপান ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ করেছিলেন অ’পু বিশ্বা’স।

গণপরিবহন চালুর ইঙ্গিত সেতুমন্ত্রীর

0

করোনাভাই’রাস প্রতিরোধে চলমান লকডাউনের পর জনস্বার্থের কথা বিবেচনায় রেখে স’রকার ঈদকে সামনে রেখে গণপরিবহন চালুর ব্যাপারে চিন্তা ভাবনা করছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এসময় তিনি আ’ন্দোলন, বি’ক্ষো’ভে না গিয়ে পরিবহন মালিক শ্র’মিকদের ধৈ’র্য ধ’রারও আহবান জানান।

অতীত থেকে শিক্ষা নেয়া উচিত: অপু বিশ্বাস

ঢালিউড কুইনখ্যাত চিত্রনায়িকা অ’পু বিশ্বা’স। গত সপ্তাহে করোনা প্রতিরোধের টিকা নিয়েছেন। রাজধানীর পু’লিশ হাসপাতা’লে টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছিলেন তিনি।

বিভিন্ন ইস্যুতে নিজের ফেসবুকে সচেনতামূ’লক বার্তা দিয়ে থাকেন অ’পু বিশ্বা’স। তারই ধারাবাহিকতায় এবার ক’রো’না মহামা’রি নিয়ে ভিডিও বার্তা দিয়েছেন অ’পু। নিজের ফেসুবক লাইভে তিনি বলেন, ‘এখন পরিবেশ খুব ভালো না। পরিস্থিতি আমাদের স’ঙ্গে নেই।

বিগত দিন থেকে এ পর্যন্ত আমাদের আ’ক্রা’ন্তের সংখ্যা হলো ৭ লাখ ৩৫ হাজার ৩২২ জন। খুবই দুঃখজনক। অ’তীত থেকে আমাদের সকলের শিক্ষা নেয়া উচিত। যখন আমাদের এ মহামা’রি শুরু হয়েছে তখন আম’রা যে পরিস্থিতি মো’কাবিলা করিনি আজকে তার থেকে কঠিন পরিস্থিতি মো’কাবিলা করছি।’

অ’পু বিশ্বা’স আরও বলেন, ‘পরিস্থিতি আসলেই আমাদের মাঝে নেই। পাশের দেশ ভা’রতে মহামা’রি যাচ্ছে। ২০২১ সাল নিয়ে আম’রা আ’নন্দিত ছিলাম, কিন্তু তা আর হলো না। আর যেন আমাদের লকডাউনে পড়তে না হয় তার জন্য সকলের স্বাস্থ্যবিধি মনে সুন্দরভাবে পথচলা উচিত। সামনে ঈদ, আ’নন্দ যেন আ’নন্দময় হয়, এটাই চাওয়া।’

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের শুরুতে থেকেই নিজেকে ঘরব’ন্দি করেছেন অ’পু বিশ্বা’স। সময় কা’টাচ্ছেন পুত্র জয়কে নিয়ে। এর আগে, যারা ধূমপান করে তাদের ধূমপান ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ করেছিলেন অ’পু বিশ্বা’স।

ঈদের পর কিছু মানুষের মুখোশ খুলবো: শামীম ওসমান

0

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান বলেছেন, আমার চাল-চলন, আচার আচ;রণে কেউ যদি ক;ষ্ট পেয়ে থাকেন তাহলে আমাকে ক্ষমা করবেন।

রাজনীতি করি তাই অনেক সময় অনেক কথা বলতে হয়। অনেকে হয়ত ক;ষ্ট পেয়ে যান। তিনি বলেন, রোজার মাস চলছে, কবে ম’রে যাই তাও জানি না।

আল্লাহ যদি ঈদের পরে সবাইকে সুস্থ রাখেন তাহলে নারায়ণগঞ্জের কিছু সত্য কথা বলব, কিছু সত্য জিনিস তুলে ধরব এবং কিছু মানুষের মু;খো;শ খুলব।

তার পরে দেখা যাক, আল্লাহ কয়দিন বাচাঁয় রাখল। জীবনে যেমন এসেছি সরবে তেমন চলে যাবো নীরবে। একইভাবে রাজনীতিতে আসছি সরবে, দরকার পরলে চলে যাব নীরবে। কিন্তু যাওয়ার আগে অনেকের মুখোশ উন্মোচন করে দিয়ে যাব।

আজ শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) জুমার নামাজের পূর্বে নারায়ণগঞ্জ শহরের মাসদাইর ক;বরস্থান মসজিদে বড় ভাই সাবেক সাংসদ নাসিম ওসমানের ৭তম মৃ;;ত্যুবার্ষিকীতে উপস্থিত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আলেম’দের দ্বারা কোনো অ’পকর্ম হলে সেটা শুধু ইসলাম ধর্ম নয়, কোনো ধর্মের জন্যই শুভকর নয় বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সং’সদ সদস্য শামীম ওসমান।

একই স’ঙ্গে একজনের অ;পরা;ধের জন্য ঢালাওভাবে পুরো শ্রেণি বা গোষ্ঠীকে দায়ী করাও যৌ;ক্তিক নয় বলে মনে করেন তিনি।

ভবি’ষ্যৎ প্রজ’ন্মকে সুনাগরিক ও ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হলে তাদের ইসলাম ধর্ম সম্প’র্কে সঠিক জ্ঞান দেওয়ার তাগিদ দিয়ে শামীম ওসমান বলেন,

মৌলবাদ শুধু ইসলাম ধর্মের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়, সব ধর্মের মধ্যেই আছে। তাই সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে যার যার অবস্থানে থেকে সতর্ক হতে হবে।

ইসলাম ধর্ম সম্প’র্কে জ্ঞান অর্জনের পাশাপাশি সঠিকভাবে আমলও করতে হবে। একজন আলেমের অ;পরা;ধের জন্য পুরো আলেমসমাজকেও খা;রাপ বলা যাবে না বলেও তিনি মত প্রকাশ করেন।

শহরের খানপুর এলাকায় ক’রোনা ডেডিকে’টেট হাসপাতালে রো’গী ভর্তির ক্ষেত্রে অনিয়;ম ও দু;র্নী;তির অভি;যোগের ব্যাপারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শামীম ওসমান জানান,

দেশের যেকোনো হাসপাতালে কারো বি;রু;দ্ধে অভি;যোগ প্রমাণ হলে তাদের বি;রু;দ্ধে ক;ঠোর ব্যবস্থা নিতে স’রকারকে সব ধরনের সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন তিনি।

একই স’ঙ্গে জীবনের ঝুঁ;কি নিয়ে গত এক বছর যাবত ক’রোনা রো’গীদের চিকিৎসাসেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যসেবাকর্মীদের সততা ও সুনাম অক্ষু;ণ্ণ রাখার অনু;রোধ জানান শামীম ওসমান।

উল্লেখ্য, ৩০ এপ্রিল ছিল নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের প্রয়াত এমপি নাসিম ওসমানের ৭ম মৃ;;ত্যুবার্ষিকী। মৃ;;ত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তার পরিবারের পক্ষ থেকে শুক্রবার বেলা ১১টায় চা;ষাঢ়া হীরা মহলে অল্প পরিসরে দোয়ার আয়োজন করা হয়।

পাশাপাশি কিছু সংখ্যক অসচ্ছল মানুষকে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করা হবে এবং বিকাল ৩টায় বন্দরে নাসিম ওসমান মডেল হাইস্কুলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি কর্তৃক মনোনীত তালিকভুক্ত কিছু অসচ্ছল মানুষকে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

আমাদের দুইজনকেও মে’রেছে: ওম’র সানি !

0

আমাদের দুইজনকেও মে’রেছে: ওম’র সানি !নব্বই দশকদের ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নায়ক ওম’র সানি। তার অ’ভিনীত অসংখ্য ব্যবসা সফল ছবি দর্শকদের মনে

গেঁথে রয়েছে। কয়েক বছর যাবত অ’ভিনয়ে অনিয়মিত হলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ সক্রিয় এইঅ’ভিনেতা। প্রায়ই দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে পোস্ট করে থাকেন তিনি। সম্প্রতি তিনি মুখ খুলেছেন চিত্রনায়ক

আলমগীরকে নিয়ে মৃ’ত্যুর গুজব ছড়ানো নিয়ে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি লিখেছেন, ‘ইউটিউব চ্যানেলের

প্রতি একটা নীতিমালা থাকা উচিত, ত’থ্য মন্ত্রণালয়ের আন্ডারে থাকা উচিত। তা কি হচ্ছে? কতো হাজার গুঞ্জন হলে

নীতিমালা করবেন? আমাকে মে’রেছে কয়েকবার, মৌসুমীকেও মে’রেছে। এটিএম সাহেবকে মে’রেছিল অনেকবার। আরো অনেককে মে’রেছে মিথ্যা ত’থ্য দেয়া এবং কাল্পনিক গল্প, আজ জলজ্যান্ত আমাদের চলচ্চিত্রের বটবৃক্ষ

আলমগীর সাহেবকে মা’রলেন। না উনি মা’রা যাননি। উনি বেঁচে আছেন।’ আরও পড়ুন: বিচ্ছেদ হয়নি, তবে আলাদা

থাকছি : ন্যান্সি তিনি আরও লিখেছেন, ‘কয়েকদিন আগে দেখলাম সাইডলাইনে বসে থাকা একটা মেয়েকে তার

অ’সুস্থতা ও অসহায়ত্ব নিয়ে তাকে নায়িকা বানিয়েছেন। আসলে উনি নায়িকা নয়। আরো অনেক গল্প। একটা নীতিমালা

হওয়া উচিত। কোন কন্ট্রোল নেই। আমাদের বিক্রি করে পয়সা কামাচ্ছে তারা। যারা এগুলো করছে তারা কি মানুষ

নাকি। যাই হোক, ত’থ্যমন্ত্রী এবং রাষ্ট্র মহোদয়কে বললাম।’ ইউটিউব চ্যানেলের প্রতি একটা নীতিমালা থাকা উচিত, ত’থ্য

মন্ত্রণালয়ের আন্ডারে থাকা উচিত তা কি হচ্ছে। কত হাজার গুঞ্জন হলে…এদিকে আলমগীরের মৃ’ত্যুর গুজবের সাথে

যারা সম্পৃক্ত তাদের শনাক্ত করে সাইবার ক্রা’ইমে মা’মলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। শনাক্তকারীদের বি’রুদ্ধে আইনি

প্রক্রিয়ায় ক’ঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছে আলমগীরের পরিবার।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তা’ণ্ডব: এখনও প্রধান ইন্ধ’নদাতারা গ্রে’ফতার হয়নি

0

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তা’ণ্ডবের একমাস পেরিয়ে গেলেও এ ঘ’টনায় চিহ্নিত প্রধান ইন্ধ’নদাতাদের কেউ গ্রে’ফতার না হওয়ায় জনমনে ক্ষো’ভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ অবস্থায় গ্রে’ফতার অ’ভিযান নিয়ে সচেতনমহলে নানা প্রশ্ন উঠেছে। তবে পু’লিশ বলছে, ভিডিও ফুটেজের ভিত্তিতেই প্রকৃত আ’সামিদের গ্রে’ফতারে অ’ভিযান চলছে।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ২৬ মার্চ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত তিনদিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরকে জ্বা’লিয়ে পু’ড়িয়ে ছারখার করে হেফাজতের নেতাকর্মীরা। তাদের তা’ণ্ডবে শহরের বাড়িঘর, দোকান-পাট, স’রকারি স্থাপনা, রেলষ্টেশনসহ অর্ধশত স্থাপনা আ’গুনে পু’ড়িয়ে দেয়া হয়।

এ ঘ’টনার এক মাস পেরিয়ে গেলেও ভিডিও ফুটেজ দেখে হেফাজতের সহকারী প্রচার সম্পাদক ছাড়া হোতাদের কাউকে গ্রে’ফতার না করায় ক্ষো’ভ প্রকাশ করেছে জে’লা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন স’রকার ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

তবে জে’লার অতিরিক্ত পু’লিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিনের দাবি, প্রতিটি মা’মলা পর্যালোচনা করে ভিডিও চিত্রের ভিত্তিতে আ’সামিদের গ্রে’ফতার করা হচ্ছে।

ঘ’টনার পর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিভিন্ন থানায় দা’য়ের করা মোট ৫৬টি মা’মলায় ৩০ থেকে ৩৫ হাজার হেফাজত কর্মীকে আ’সামি করা হয়েছে। আর গ্রে’ফতার হয়েছে ৪শ’ জন।

মৃ’ত্যুর পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল মুনিয়ার যে ভিডিও

0

রাজধানীর গুলশানের অভিজাত ফ্ল্যাটে থাকতেন ঢাকার একটি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়া।

সোমবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যার পর গুলশান ১ নম্বরের একটি ফ্ল্যাট থেকে এই তরুণীর লা’শ উ’দ্ধার করা হয়।

এ ঘ’টনায় সোমবার দিবাগত রাতে গুলশান থানায় বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভিরের নামে একটি মা’মলা দা’য়ের করেছেন নি’হতের বড়বোন।

মা’মলার বিবরণে তিনি উল্লেখ করেন, সায়েম সোবহান তার বোনকে আত্মহ’ত্যা করতে প্ররোচিত করেছেন।

পু’লিশের গুলশান বিভাগের উপকমিশনার সুদীপ কুমার চ’ক্রবর্তী জানান, পু’লিশ লা’শ উ’দ্ধার করে ম’য়নাত’দন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ম’র্গে পাঠিয়েছে। পু’লিশ নি’হতের ব্যবহৃত ইলেকট্রনিক ডিভাইসগুলো সংগ্রহ করেছে। এছাড়া ভবনের সিসিটিভি ফুটেজও নেওয়া হয়েছে।

এই পু’লিশ কর্মকর্তা বলেন, ওই তরুণী রবিবার তার বড় বোনকে ফোন করে বলেন, তিনি ঝামেলায় পড়েছেন। এ কথা শুনে তার বড় বোন সোমবার ঢাকায় আসেন। সন্ধ্যার দিকে ওই ফ্ল্যাটে যান তিনি। দরজায় ধাক্কাধাক্কি করলেও বোন দরজা খুলছিলেন না।

এরও কিছুক্ষণ আগে থেকে বোনের ফোন বন্ধ পাচ্ছিলেন। পরে বাইরে থেকে “লক” খুলে ঘরে ঢুকে বোনকে ফ্যানের স’ঙ্গে ঝুলতে দেখেন। পরে তিনি বাড়িওয়ালাকে বি’ষয়টি জানান। তখন পু’লিশে খবর দেওয়া হয়।

এদিকে মুনিয়ার মৃ’ত্যুর পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে তার একটি ভিডিও। কলেজছাত্রী এই তরুণী গুলশানের ওই ফ্র্যাটে একা থাকলেও তার তার স’ঙ্গী হিসেবে সবসময় একটি পোষা বিড়াল ছিল।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের পোষা বিড়ালের স’ঙ্গে প্রায়সময়ই বিভিন্ন ছবি ও ভিডিও পোস্ট করতেন মুনিয়া। তার মৃ’ত্যুর পর সেই পোষা বিড়ালের স’ঙ্গে একটি ভিডিও নতুন করে ফের আলোচনার সৃষ্টি করেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।